১৫ দিনের কর্মসূচি নিয়ে আবারও কাজল কান্তি দাশ !

purabi burmese market

বান্দরবান পৌর শহরকে পরিচ্ছন্ন, সড়কে জীবাণুনাশক পানি ছিটানো, মশক নিধন স্প্রে, গরীব রোগীদের অক্সিজেন সেবা প্রদান কর্মসূচি এ চার ধরনের সেবা নিয়ে আবারও এগিয়ে এসেছেন পার্বত্য চট্টগ্রাম আঞ্চলিক পরিষদের সদস্য কাজল কান্তি দাশ ।

গতকাল শুক্রবার বিকেলে রোটারিয়ান কাজল কান্তি দাশের ১৫ দিনব্যাপী এ সেবা কার্যক্রমের শুভ উদ্বোধন করেন পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং ।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন বান্দরবান পার্বত্য জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ক্য শৈ হ্লা,অতিরিক্তি জেলা প্রশাসক মো. শফিউল আলম,অতিরিক্ত পুলিশ সুপার রেজা সরোয়ার,পার্বত্য জেলা পরিষদের সদস্য লক্ষীপদ দাস,মোজ্জাম্মেল হক বাহাদুর,পৌর আওয়ামীলীগের সভাপতি অমলকান্তি দাশসহ বান্দরবান জেলা আওয়ামী লীগের এর অঙ্গ ও সহযোগি সংগঠনের নেতাকর্মী ও সুশীল সমাজের প্রতিনিধিরা।

এ সময় মন্ত্রী বীর বাহাদুর বলেন, করোনার মহামারীর সময়ে কাজল কান্তি দাশ বিভিন্ন কার্যক্রম পরিচালনা করে মানুষের পাশে এসে দাঁড়িয়েছেন । সকলেই ওনার মত নিজ অবস্থান থেকে সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিলে বান্দরবান হবে একটি সুন্দর ও পরিচ্ছন্ন শহর।

তবে বান্দরবান পৌর শহরে এই চার সেবা চালুর প্রসঙ্গে পার্বত্য চট্টগ্রাম আঞ্চলিক পরিষদ সদস্য কাজল কান্তি দাশ বলেন, বান্দরবান পৌর এলাকা একটি পর্যটন এলাকা । দেশ বিদেশে প্রচুর পর্যটক প্রতি বছর বান্দরবানে বেড়াতে আসে। বান্দরবান এখন কক্সবাজারের পরে দ্বিতীয় পর্যটন শহর। এ পৌর শহরকে পরিস্কার-পরিচ্ছন্নতা রাখার আমাদের সকলেরই নৈতিক দায়িত্ব ।

dhaka tribune ad2

তিনি আরো বলেন, আমি নিজেও একজন পৌর বাসিন্দা। বর্তমান পৌর পরিষদ নানাবিধ সমস্যায়, ইচ্ছে থাকলেও তারা অনেক কিছু করতে পারছেন না । তাই আমি আমার নৈতিক দায়িত্ব মনে করে মাননীয় মন্ত্রী বীর বাহাদুরের নির্দেশনায় এ চারটি সেবা চালু করেছি ।

আগামীতে মন্ত্রীর নির্দেশনায় বিভিন্ন সংগঠন ও ব্যক্তি এগিয়ে আসবে এটা আমার দৃঢ় বিশ্বাস । আমার এ কার্যক্রমে প্রিয় কাউন্সিলর ও পৌরবাসীর সহযোগিতা কামনা করি বলে জানান পার্বত্য চট্টগ্রাম আঞ্চলিক পরিষদ সদস্য কাজল কান্তি দাশ ।

আরও পড়ুন
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।