২১ বছর পরেও পার্বত্য চুক্তির মৌলিক ধারা বাস্তবায়ন হয়নি : সন্তু লারমা

৩৫তম মৃত্যু বার্ষিকী উপলক্ষে স্মরণ সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখছেন সন্তু লারমা
পার্বত্য চুক্তির ২১ বছর পরেও মৌলিক ধারাগুলো বাস্তবায়ন করা হয়নি। ৩৫ বছর পরেও পার্বত্যাঞ্চলে সামাজিক পরিস্থিতি এখনো আগের মতন রয়ে গেছে, বেড়েছে ষড়যন্ত্র। আজ শনিবার পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতির আয়োজনে জুম্ম জনগণের অন্যতম নেতা মানবেন্দ্র নারায়ন লারমার (এমএন লারমা) ৩৫তম মৃত্যু বার্ষিকী উপলক্ষে স্মরণ সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে সন্তু লারমা এসব কথা বলেন।
সন্তু লারমা বলেন, পার্বত্যাঞ্চলে অবৈধ অস্ত্র উদ্ধারের নামে যারা আন্দোলন ঘোষনা করে যাচ্ছে, তারাই শাসকগোষ্ঠীদের মাধ্যমে চাঁদাবাজি করছে। কিন্তু পার্বত্যাঞ্চলের মানুষ জেগে উঠেছে। আগের মত গামছা পড়া পাহাড়ি আর নেই। বর্তমানে আধুনিক শিক্ষায় শিক্ষিত হয়েছে। নিজের অধিকার আদায়ের জন্য সংগ্রাম করতে শিখেছে। পার্বত্য চট্টগ্রামে শাসকগোষ্ঠীর কুচক্রীরাই পার্বত্য চট্টগ্রামে অশান্তি সৃষ্টি করেছে। সেই ষড়যন্ত্র এখনো শেষ হয়ে যায়নি।
পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতির রাঙ্গামাটি জেলা কমিটির সহ-সভাপতি কিশোর কুমার চাকমার সভাপতিত্বে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন স্থানীয় সংসদ সদস্য ঊষাতন তালুকদার এমপি, পার্বত্য চট্টগ্রাম আঞ্চলিক পরিষদের সদস্য গৌতম কুমার চাকমা, পার্বত্য চট্টগ্রাম আদিবাসী ফোরামের সভাপতি প্রকৃতি রঞ্জন চাকমা, শিক্ষাবীদ ও লেখক মংশানু চৌধুরী, জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের প্রাক্তন সদস্য নিরুপা দেওয়ান প্রমূখ।
এর আগে সকালে ‘পার্বত্য চুক্তি বাস্তবায়নসহ জুম্ম জাতির অস্তিত্ব সুরক্ষায় এগিয়ে আসুন’ এই স্লোগানকে সামনে রেখে প্রতি বছরের ন্যায় এবারো পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতির আয়োজনে জুম্ম জাতির অন্যতম নেতা মানবেন্দ্র নারায়ন লারমার (এমএন লারমা) ৩৫তম মৃত্যু বার্ষিকী যথাযোগ্য মর্যাদায় পালিত হয়েছে। এ উপলক্ষ্যে শনিবার সকালে শহরে একটি শোক র‌্যালী বের করা হয়। র‌্যালী শেষে শিল্পকলা একাডেমী হলরুমে স্মরণ সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

আরও পড়ুন
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।