৫০ বছরেও বিশুদ্ধ পানির মুখ দেখেনি কাপ্তাইয়ের শীলছড়ির মানুষ

রাঙামাটির কাপ্তাই উপজেলা সদর হতে মাত্র ২ কিমি পথ বেয়ে পৌঁছাতে হয় শিলছড়ি এলাকায়। ৫ হাজার পাহাড়ী- বাঙালীর বসবাস এই এলাকায়। এলাকাটি ৫ নং ওয়াগ্গা ইউনিয়ন এর ৯ নং ওয়ার্ডের অন্তর্ভুক্ত। শিলছড়ি বাজারে গিয়ে দেখা মিলে এলাকার বাসিন্দা মোঃ এমরান হোসেন,রহিম উল্লা,পাইমং কারবারী,আতিক মিস্ত্রী এবং ভুট্রোসহ আরোও অনেকের সাথে।

তারা সকলে জানান, এলাকায় বিশুদ্ধ পানির সংকটের কথা। এলাকাবাসী জানান, স্বাধীনতার ৫০ বছরেরও এলাকার লোকজনের একটি বিশুদ্ধ পানি বা ডিপ টিউবওয়েল ভাগ্য জোটেনি। বহু বছর যাবৎ সুপেয়ও পানির জন্য ভুগতেছি। আমরা ২ কিমি পাড়ি দিয়ে বড়ইছড়ি, বিজিবি ক্যাম্পসহ বিভিন্ন এলাকা হতে বিভিন্ন বাহনযোগে পানি সংগ্রহ করে তা ব্যবহার করছি, এতে খরচ বাড়ছে আমাদের এবং ঘন্টার পর ঘন্টা সময়ও নষ্ট হচ্ছে ।

অনেকসময় বিশুদ্ধ পানি না পাওয়ার কারনে আমাদের পরিবারের লোকজন নদীর পানি পান করছে ফলে ময়লা দূর্গন্ধযুক্ত পানি ব্যবহার করে টাইফয়েড, ডায়রিয়া, চর্মরোগসহ বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত হয়ে পড়েছে বলে অভিযোগ করেন তারা। তারা প্রশাসনের নিকট শিলছড়ি এলাকায় একটি ডিপ টিউবওয়েল স্থাপন করার আহবান জানান।

এই বিষয়ে শিলছড়ি এলাকার ৯ নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য মাহাবুব আলম জানান, বিশুদ্ধ পানির জন্য আমি উপজেলা পরিষদ, পাবলিক হেলথসহ বিভিন্ন দপ্তরে ধর্না দিয়েছি এবং প্রয়োজনে আরোও ধর্না দিবো।

এই ইউপি সদস্য আরোও জানান, শিলছড়ি আনসার ক্যাম্পে একটি এবং বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থা আইডিএফের দু’টি টিউবওয়েল ছিল এই এলাকায়, যা দীর্ঘ দিন যাবৎ বিকল থাকার ফলে লোকজনের কষ্টের মাত্রা বেড়ে গেছে। এখন লোকজন বহুদুর হতে বিভিন্ন বাহনের মাধ্যমে খাওয়ার পানি সংগ্রহ করছে। এছাড়া জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তরের যে সকল রিং ওয়েল ছিল, তা দীর্ঘ বছর যাবৎ নষ্ট হয়ে পড়ে আছে। অনেকবার অভিযোগ করা হলেও তা আর মেরামত করা হয়নি। আমরা চাই উক্ত এলাকায় একটি ডিপ টিউবওয়েল দিয়ে বিশুদ্ধ পানির ব্যবস্থা করা হউক।

৫ নং ওয়াগ্গা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান চিরন্জীত তংচঙ্গা জানান, ঐ এলাকায় টিপ টিউবওয়েল এর প্রচুর চাহিদা থাকা সত্ত্বেও এবং সরকারি বরাদ্দ থাকার পরও প্রয়োজনীয় পানির স্থর না পাওয়ায় টিপ টিউবওয়েল বসানো হচ্ছে না। তিনি আরোও জানান, ওয়াগ্গা মৌজার হেডম্যান পাড়ায় ৬শ ফুট বোরিং করার পরও পানি পাওয়া যায়নি, তবে শীলছড়ি এলাকার পানি সংকট সমাধান অচিরেই করা হবে।

কাপ্তাই উপজেলা জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তরের উপ সহকারী প্রকৌশলী লিমন চন্দ্র বর্মন জানান, আমরা ন্যানো ফিল্টারের (পানি বিশুদ্ধকরণ প্রক্রিয়া) মাধ্যমে সপ্তাহ খানিক এর মধ্যে শিলছড়ি বাজার অথবা শিলছড়ি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে পানি বিশুদ্ধকরন প্রক্রিয়ার মাধ্যমে ঐ এলাকায় পানি সরবরাহ করবো।

আরও পড়ুন
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।