আলীকদমের নয়াপাড়া ইউনিয়নে ২০ দিন ধরে বিদ্যুৎ নেই

ঘূর্ণিঝড় ‘মোরা’র তান্ডবের ২০ দিন পার হলেও এখনো বিদ্যুৎ সংযোগ পায়নি বান্দরবানের আলীকদম উপজেলার নবগঠিত নয়াপাড়া ইউনিয়নবাসী। এতে চরম দুর্ভোগ পোহাচ্ছে পাঁচ সহস্রাধিক মানুষ।
বিদ্যুৎ ব্যবস্থার এ চরম বিপর্যয়ের জন্য স্থানীয়রা লামা-আলীকদম-ফাঁসিয়াখালী সড়কের পাশে অপরিকল্পিত বনায়নকে দায়ি করছেন। বর্ষা মৌসুমে বিদ্যুৎ নিবিঘ্ন করতে সড়কের পাশের অপরিকল্পিত বনায়নের ফলে বেড়ে উঠা রেইনট্রি গাছ কেটে ফেলে তাল গাছ লাগানোর দাবি জানান স্থানীয়রা।
জানা গেছে, গত ৩০ মে ঘূর্ণিঝড় ‘মোরা’র তান্ডবে উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নে শত শত ঘরবাড়ি বিধ্বস্ত হওয়ার পাশাপাশি বৈদ্যুতিক লাইনের খুঁটি ও তার ছিঁড়ে যায়। ১১ দিন পর আলীকদম উপজেলা সদরে বিদ্যুৎ সংযোগ দিলেও এখনও উপজেলা সদর থেকে এক কিলোমিটার দূরে অবস্থিত নয়াপাড়া ইউনিয়নে বিদ্যুৎ সংযোগ দেয়া হয়নি।
গত ৪ জুন পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং ক্ষতিগ্রস্ত এলাকা পরিদর্শনকালে যে কোনো মূল্যে তিন দিনের মধ্যে বিদ্যুৎ সরবরাহের নির্দেশ দেন কিন্তু এ নির্দেশ ২০ দিনেও কার্যকর করেনি লামা বিদ্যুৎ বিতরণ বিভাগ। অপরদিকে সদর ইউনিয়নের কয়েকটি এলাকায় এখনও বিদ্যুৎ পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়নি।
নয়াপাড়া ইউনিয়নের গ্রাহক মো. বাবুল মিয়া ও ছাবের আহমদ জানান, বিদ্যুৎ না থাকায় ইফতার, সেহরী ও তারাবির নামাজ পড়াসহ বিভিন্ন কাজে চরম দুর্ভোগ পোহাচ্ছেন। শনিবার এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত বিদ্যুৎ ব্যবস্থা স্বাভাবিক হয়নি বলে স্থানীয়রা জানিয়েছেন।
গত ২০ দিন ধরে বিদ্যুৎ সরবরাহ বন্ধের সত্যতা নিশ্চিত করে নয়াপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ফোগ্য মার্মা জানান, লামা বিদ্যুৎ বিভাগের আবাসিক প্রকৌশলীর সঙ্গে যোগাযোগ করা হয়েছে, তিনি বিভিন্ন সমস্যার কথা বলেছেন এবং সরঞ্জাম ও লোকবলের স্বল্পতার কথা বলেন।
এ বিষয়ে লামা বিদ্যুৎ বিতরণ কেন্দ্রের আবাসিক প্রকৌশলী অলিউল ইসলাম বলেন, বিদ্যুৎ সরবরাহ স্বাভাবিক করতে কাজ চলছে। আশা করি এক দু দিনের মধ্যে নয়াপাড়া ইউনিয়নবাসী বিদ্যুৎ পাবেন।

আরও পড়ুন
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।