বান্দরবানে যুবলীগ নেতার উপর সন্ত্রাসী হামলার ঘটনায় মামলা

বান্দরবানের পৌর যুবলীগের উপ প্রচার সম্পাদক রানা চৌধুরী’র উপর সন্ত্রাসীদের হামলার ঘটনায় বান্দরবান সদর থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, হত্যার চেষ্টার অভিযোগে আজ (১ আগস্ট) শনিবার সন্ধ্যায় ৪ জন অজ্ঞাত ব্যাক্তিকে আসামী করে রানা চৌধুরী বান্দরবান সদর থানায় এই মামলা দায়ের করেন।

মামলার সূত্রে জানা যায়, ব্যবসায়িক কাজে হিরো গ্লামার মোটর সাইকেলে রাঙ্গামাটি গিয়ে সন্ধ্যা ৭ টার সময় রাঙ্গামাটি হতে কাপ্তাই হয়ে বান্দরবান ফেরার পথে ২নং কুহালং ইউনিয়নস্থ ১নং ওয়ার্ডের ক্যামলং পাহাড় নামক স্থানে পৌছালে পূর্ব হতে ওৎ পেতে থাকা ৪ জন অজ্ঞাতনামা আসামী মোটর সাইকেল এর গতিরোধ করার জন্য রাস্তার উপরে এসে তাদের মধ্যে একজন তার হাতে থাকা কাঠের বাটাম দিয়ে আঘাত করলে মটর সাইকেল নিয়ে মাটিতে লুটিয়ে পড়ে রানা। তখন ৪জন আসামীর সকলে একত্রে তাদের হাতে থাকা কাঠের বাটাম দিয়ে তাকে এলোপাতাড়ি আঘাত করতে শুরু করে। যার ফলে দু হাত, পিঠসহ সারা শরীরে আঘাত প্রাপ্ত হন। এক পর্যায়ে হেলমেট পড়া অবস্থায় একজন আসামী তার হাতে থাকা দা নিয়ে গলায় ধরে যা কিছু আছে তা বের করে দেয়ার জন্য বললে রানা অস্বীকৃতি জ্ঞাপন করায় সাথে সাথে উক্ত আসামী তার হাতে থাকা দা দিয়ে হত্যার উদ্দেশ্যে কোপ দিলে দ্রুত সরে যাওয়ায় উক্ত কোপ পাশে মাটিতে পড়ে থাকা মোটর সাইকেল এর তেলের টাংকির ডানপাশে আঘাত করে ।

তিনি আরো বলেন,আসামীরা প্রাণে হত্যার ভয় দেখিয়ে জোর পূর্বক বলপ্রয়োগ করে মানিব্যাগ যাতে প্রায় ২০,০০০ হাজার টাকা এবং রুপালী ব্যাংক লিমিটেড ও অগ্রনী ব্যাংক লিমিটেড এর ৬,৭৬,০০০ হাজার টাকা ও ৫,৮৪,০০০ হাজার) টাকার ২ টি চেক সহ ছিনতাই করে নিয়ে যায়। পরবর্তীতে মাহেন্দ্র থ্রি হুইলার এর ড্রাইভার ঘটনাস্থলে এসে তাকে উদ্ধার করলে আত্মীয় স্বজন ও শুভাকাঙ্খীদের ফোনে ঘটনা সম্পর্কে অবহিত করলে বান্দরবান সদর থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে তাকে উদ্ধার করে বান্দরবান সদর হাসপাতালে নিয়ে প্রাথমিক চিকিৎসার ব্যবস্থা করে।

এদিকে বান্দরবান সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি তদন্ত) মো:সোহাগ রানা জানান, যেহেতু মামলা হয়েছে, সেহেতু বিষয়টি তদন্ত করে যথাযথ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

আরও পড়ুন

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।