ঈদ-উল-আযহা উপলক্ষ্যে কমিউনিটি পুলিশিং সভা

ঈদ-উল-আযহা উপলক্ষে সদর থানা কমিউনিটি পুলিশিং এর সভায় বক্তব্য রাখছেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) শম্পা রানী সাহা
বান্দরবান সদর থানা কমিউনিটি পুলিশিং এর উদ্যোগে বান্দরবান বাজার ব্যবসায়ী সমিতির অফিস কার্যালয়ে পবিত্র ঈদ-উল-আযহা উপলক্ষে কোরবানী পশুর হাট ইজারাদার বাজার কমিটি, গরু, ছাগল ব্যবসায়ী এবং পশুর হাট সংশ্লিষ্ট সকল ব্যবসায়ীদের সাথে মতবিনিময় ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।
উক্ত মতবিনিময় ও আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) শম্পা রানী সাহা। বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন আবাসিক হোটেল মালিক সমিতির সভাপতি অমল কান্তি দাশ, একে এম জাহাঙ্গীর, চহ্লা প্রু জিমি, প্রেসক্লাব সভাপতি আমিনুল ইসলাম বাচ্চু, সাধারণ সম্পাদক ফরিদুল আলম সুমন এবং বান্দরবান বাজার ব্যবসায়ী সমিতির নেতারা উপস্থিত ছিলেন।
বান্দরবান সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা রফিক উল্লাহ কোরবানী পশুর হাট ইজারাদারগণদের পবিত্র ঈদ-উল-আযহার শুভেচ্ছা জানিয়ে স্বাগত বক্তব্য রাখেন। এসময় তিনি বলেন, কোরবানী পশুর হাটে দালালদের উৎপাতের কারণে যাতে সাধারণ ক্রেতাগণ হয়রানির শিকার না হয় সে দিকে লক্ষ্য রাখতে হবে ইজারাদারদের।
এসময় তিনি আরো বলেন, পশু বিক্রির টাকা যেন জাল টাকা না দিতে পারে সে জন্য হাটে জাল টাকা চেকের মেশিন ও পুলিশ কন্ট্রোল রুম সব সময় ডিউটিতে নিয়োজিত থাকবে। কোরবানী পশুর বিভিন্ন বর্জ্য ও ময়লা আবর্জনা ফেলার জন্য নির্দিষ্ট স্থান ব্যবহার করতে পশুর হাট ইজারাদারদের।
অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) শম্পা রানী সাহা বলেন, কোরবানীর পশুর হাটের নিরাপত্তার বিষয়ে আমরা পদক্ষেপ নিয়েছি। কোরবানী পশুর হাটের আইন শৃঙ্খলা ও নিরাপত্তা রক্ষার্থে আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীকে সর্বাত্মক সহযোগিতা করার জন্যও তিনি অনুরোধ করেন।

আরও পড়ুন
1 মন্তব্য
  1. Aung Mong বলেছেন

    আমি ০৫ নং ওয়ার্ডের কমিশনার এবং বর্তমান ওসি সাহেবকে এবং সম্ভবত জুন মাসের আইন শৃঙ্খলা সভায় কমিউনিটি পুলিশিং কমিটিকে কার্যকর করার জন্য নতুন কমিটি গঠন করার অনুরোধ জানিয়েছিলাম। একটা শক্তিসালী কমিটি গঠিত হলে এলাকার জনগন অনেক উপকৃত হবে।

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।