এমএন লারমা’র ৩৪ তম মৃত্যুবার্ষিকীতে বান্দরবানে নানা কর্মসূচী

মানবেন্দ্র নারায়ন লারমা
পাহাড়ে বসবাসরত ১৩ ভাষাভাষি পাহাড়ি জাতি গোষ্ঠী সমূহের রাজনৈতিক অধিকার প্রতিষ্ঠার জন্য সত্তরের দশকে আন্দোলন গড়ে তুলেছিলেন মানবেন্দ্র নারায়ণ লারমা (এমএন লারমা)। কাল পাহাড়ের মানুষের প্রানপ্রিয় নেতা এমএন লারমা’র ৩৪ তম মৃত্যুবার্ষিকী। আর এই দিনটিকে সামনে রেখে বান্দরবানে নানা কর্মসূচী গ্রহন করেছে পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতিসহ বিভিন্ন সংগঠন।
সংগঠনটির সূত্রে জানা গেছে,কাল ১০ই নভেম্বর শুক্রবার সকাল ৭টা থেকে দিনব্যাপী পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতির জেলা কার্যালয়ে মানবেন্দ্র নারায়ন লারমা’র ৩৪ তম মৃত্যুবার্ষিকী নানা কর্মসূচির মধ্য দিয়ে পালন করবে। পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতির বান্দরবান সদর থানা শাখার উদ্যোগে শহরের মধ্যম পাড়াস্থ দলীয় কার্যালয়ের উক্ত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতির কেন্দ্রীয় সহ সাংগঠনিক সম্পাদক কে এস মং ও সংগঠনটির কেন্দ্রীয় ও জেলার নেতৃবৃন্দরা।
অনুষ্ঠান সূচীতে রয়েছে, সকাল ৭টায় কালো ব্যাজ ধারণ, ৮টায় প্রভাত ফেরী, ৯টায় শহীদ বেদীতে পুস্পমাল্য অর্পণ, ১০টায় শোকসভা ও বিকাল ৫টায় ফানুস উত্তোলন ও মোমবাতি প্রজ্জলনের মধ্য দিয়ে শেষ হবে দিনব্যাপী কর্মসূচি।
উল্লেখ্য, ১৯৯৭ সালে ‘শান্তিচুক্তি’ সম্পাদনের পর এম এন লারমা’র প্রতিষ্ঠিত দল ‘জনসংহতি সমিতি’ তিন পার্বত্য জেলায় প্রকাশ্য রাজনীতিতে সক্রিয় হয়ে উঠে। তখন থেকেই সংগঠনটি ছাড়াও পাহাড়িদের বিভিন্ন সামাজিক-সাংস্কৃতিক সংগঠন ১০ নভেম্বর এম এন লারমা’র মৃত্যু বার্ষিকীতে নানা কর্মসূচি পালন করে আসছে। এছাড়া রাজধানীসহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে প্রগতিশীল সংগঠনগুলো বেসরকারিভাবে ১০ নভেম্বর পালন করে থাকে।

আরও পড়ুন
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।