পাহাড়ের বহু ভাষিক শিক্ষায় সমস্যা চিহ্নিত করণ নিয়ে খাগড়াছড়িতে কর্মশালা

প্রাথমিক স্তরে বহু ভাষিক শিক্ষা কর্মসূচি বাস্তবায়নে বাঁধা সমূহ চিহ্নিতকরণ ও সমাধানের উপায় নির্ধারণে আজ বৃহষ্পতিবার (১২মার্চ) খাগড়াছড়ি জেলা সদরে প্রাথমিক শিক্ষক, শিক্ষা কর্মকর্তা ও বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সদস্যদের নিয়ে একটি কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

খাগড়াছড়ি সদর উপজেলা শিক্ষা কার্যালয়,উপজেলা রিসোর্স সেন্টার ও সেতু-এমএলই প্রকল্প কর্তৃক আয়োজিত কর্মশালাটি অনুষ্ঠিত হয় স্থানীয় উন্নয়ন সংস্থা জাবারাং এর কার্যালয়ে।

উপজেলা রিসোর্স সেন্টারের প্রশিক্ষক রিন্টু কুমার চাকমা সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলা পরিষদের সদস্য ও প্রাথমিক শিক্ষা বিভাগের আহ্বায়ক মংক্যচিং চৌধুরী। অনুষ্ঠানে জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা ফাতেমা মেহের ইয়ানমিন বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন।

কর্মশালায় প্রাথমিক স্তরে বহুভাষিক শিক্ষার বিষয়ে বর্তমান চিত্র ও ভবিষ্যত কর্মপন্থার ওপর মাল্টিমিডিয়ার মাধ্যমে প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন জাবারাং কল্যাণ সমিতির নির্বাহী পরিচালক মথুরা বিকাশ ত্রিপুরা।

কর্মশালায় বহু ভাষিক শিক্ষায় সমস্যা হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছে শিক্ষক স্বল্পতা, শিক্ষকদের প্রশিক্ষণের অভাব,স্কুলে শ্রেণী কক্ষের অভাব, সঠিক পরিকল্পনা ও শিক্ষকদের সচেতনতার অভাবকে চিহ্নিত করেছেন। এর সমাধান হিসেবে প্রত্যেক স্কুলের জন্য সম্প্রদায় ভিত্তিক স্ব স্ব ভাষায় দক্ষ শিক্ষক নিয়োগ, শিক্ষকদের প্রয়োজনীয় প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করা, বছরের শুরুতে কর্মপরিকল্পনা ঠিক করা ও শিক্ষা উপকরণ সরবরাহ করার সুপারিশ করা হয়েছে।

কর্মশালায় বিভিন্ন স্কুলের ৯ জন প্রধান শিক্ষক, ৯ জন সহকারি শিক্ষক, ৩জন স্কুল ব্যবস্থাপনা কমিটির সদস্য,২ জন উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা ও জাবারাং কল্যাণ সমিতির কর্তৃক পরিচালিত সেতু-এমএলই প্রকল্পের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

আরও পড়ুন

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।