বান্দরবানে সরকারি ভাবে বিতরণকৃত কৃমিনাশক ঔষুধ খেয়ে ৬ ছাত্রী অসুস্থ

অসুস্থ ছাত্রীকে ভর্তি করা হয়েছে ক্লিনিকে
বান্দরবানে সরকারি ভাবে বিদ্যালয়ে বিতরণকৃত কৃমিনাশক ঔষুধ খেয়ে ৬ ছাত্রী অসুস্থ হয়ে পড়েছে। সোমবার বিকেলে বান্দরবান সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে এই ঘটনা ঘটে। অসুস্থ ছাত্রীরা হল বান্দরবান সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে ষষ্ঠ শ্রেণীর (১) তানজিনা আক্তার (২)শিউলী দাশ (৩) আখিঁ আক্তার এবং সপ্তম শ্রেণীর (৪) কমলিকা রুদ্র ও অন্য দুজনের নাম পাওয়া যায়নি।
বিদ্যালয়ের শিক্ষক ও ছাত্রীরা জানান,বিদ্যালয়ে সরকারিভাবে বিনামুল্যে বিতরণকৃত কৃমিনাশক ঔষুধ খাওয়ার পরপরই কয়েকজন ছাত্রী বমি করে এবং মাথা ঘুরে পড়ে যায়। এসময় বিদ্যালয়ের শিক্ষক ও অভিভাবকরা অসুস্থ ৬ জন ছাত্রীকে বান্দরবান সরকারি হাসপাতালে ও বেসরকারী ক্লিনিকে ভর্তি করে। হাসপাতালে ছাত্রীদের ভর্তির পরপরই দায়িত্বপ্রাপ্ত চিকিৎসকরা তাদের চিকিৎসা সেবা প্রদান করে।
বান্দরবান সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক স্মৃতি কণা দে বলেন, বিদ্যালয়ের ৮০০ ছাত্রীদের এই ওষুধ বিতরণ করা হলেও বিতরণের ১৫-২০ মিনিট পর কয়েকজন ছাত্রী বমি শুরু হয়।
এদিকে সরকারিভাবে বিদ্যালয়ে বিনামুল্যে বিতরণকৃত কৃমিনাশক ঔষুধ খেয়ে ৬ জন ছাত্রী অসুস্থ হওয়ার খবর ছড়িয়ে পড়লে ছাত্রছাত্রী ও অভিভাবকদের মধ্যে আতংক ছড়িয়ে পড়ে।
বান্দরবান সিভিল সার্জন অফিসের মেডিকেল অফিসার ডা:মাহতাব উদ্দিন চৌধুরী বলেন, এই ধরনের ঘটনায় আতংকিত হওয়ার কিছু নেই। কৃমিনাশক ঔষুধ খাওয়ার পরপরই অনেকের মধ্যে বমি বমি ও মাথা ঘুরানোর লক্ষন দেখা দেয়া স্বাভাবিক,তবে ডাক্তারের পরামর্শ মোতাবেক চিকিৎসা নিলে সুস্থ হবে সকলে।

আরও পড়ুন

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।