মাটিরাঙ্গায় মুক্তিযোদ্ধা-আওয়ামীলীগ মুখোমুখি !

মামলা প্রত্যাহারের দাবীতে মাটিরাঙ্গায় মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের বিক্ষোভ মিছিল
মামলা প্রত্যাহারের দাবীতে মাটিরাঙ্গায় মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের বিক্ষোভ মিছিল
খাগড়াছড়ির মাটিরাঙ্গা পৌরসভার ১নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর ও মাটিরাঙ্গা উপজেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের সভাপতি মো: এমরান হোসেন কর্তৃক তার বাড়িতে চুরির অভিযোগে মুক্তিযোদ্ধা পরিবার ও তার সন্তানকে জড়ানোর ঘটনায় দ্বিতীয়বারের মতো আবারো মাটিরঙ্গায় আওয়ামীলীগ-মুক্তিযোদ্ধারা মুখোমুখি অবস্থানে। এ ঘটনায় মুক্তিযোদ্ধা ও মুক্তিযোদ্ধার সন্তান কমান্ড নেতৃবৃন্দ মাটিরাঙ্গা পৌরসভার কাউন্সিলর এমরান হোসেনের বহিস্কার দাবী করেছে।

খাগড়াছড়ির মাটিরাঙ্গা পৌরসভার ১নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর ও মাটিরাঙ্গা উপজেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের সভাপতি মো: এমরান হোসেন কর্তৃক তার বাড়িতে চুরির অভিযোগে মুক্তিযোদ্ধা পরিবার ও তার সন্তানের বিরুদ্ধে দায়ের করা মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবীতে মাটিরাঙ্গায় বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশের মধ্য দিয়ে এ বিরোধ এখন প্রকাশ্যে।

রোববার বেলা ১১টার দিকে মাটিরাঙ্গা উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদ থেকে এক বিক্ষোভ মিছিল শুরু হয়ে মাটিরাঙ্গার প্রধান প্রধান সড়ক ঘুরে মাটিরাঙ্গা চত্বরে প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। মাটিরাঙ্গা পৌর মুক্তিযোদ্ধা সংসদ কমান্ড‘র সভাপতি মো: আবুল হাশেম এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত প্রতিবাদ সমাবেশে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন খাগড়াছড়ি জেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার মো: রইচ উদ্দিন।

মাটিরাঙ্গা উপজেলা যুবলীগের সিনি: সহ-সভাপতি মোঃ শওকত আকবরের পরিচালনায় মুক্তিযোদ্ধা সন্তান ও মাটিরাঙ্গা পৌরসভার সাবেক কাউন্সিলর মো; সাইফুল ইসলাম বাবু, মো: সাদ্দাম হোসেন, মাটিরাঙ্গা পৌরসভার ৯নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মো: আবদুল খালেক, জেলা মুক্তিযোদ্ধা সন্তান কমান্ডের আহবায়ক মো: হারুন মিয়া ও মাটিরাঙ্গা উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার মো: মনছুর আলী প্রমূখ বক্তব্য রাখেন।

মাটিরাঙ্গা পৌরসভার কাউন্সিলর মো: এমরান হোসেনের বাড়ি চুরির ঘটনাকে পুর্বপরিকল্পিত দাবী করে এ ঘটনায় মুক্তিযোদ্ধা সন্তান মো: শফিকুল ইসলাম মিলনকে জড়ানোর নিন্দা জানিয়ে মুক্তিযোদ্ধা ও মুক্তিযোদ্ধার সন্তান সংসদের নেতৃবৃন্দ বলেন, মুক্তিযুদ্ধের শক্তিকে বিভক্ত করতেই কাউন্সিলর মো: এমরান হোসেন মুক্তিযোদ্ধা সন্তানকে পরিকল্পিতভাবে চুরির ঘটনায় জড়িয়েছে। এর আগেও এক মুক্তিযোদ্ধা সন্তানকে মাদকসহ আটক করে শারীরিকভাবে নির্যাতন করার অভিযোগ করে তারা মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের সাথে তার বৈরিতার কারণ জানতে চান।

এ ঘটনা অনাকাঙ্খিত উল্লেখ করে খাগড়াছড়ি জেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার মো: রইচ উদ্দিন বলেন, কোন আওয়ামীলীগ নেতা একজন মুক্তিযোদ্ধা সন্তানের গায়ে চুরির তকমা লাগাতে পারেনা। এ ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত দাবী করে তিনি মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে সমুন্নত রাখতে মাটিরাঙ্গা পৌরসভার ১নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর এমরান হোসেনকে আওয়ামীলীগ থেকে বহিস্কারসহ তার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের দাবী জানান।

প্রসঙ্গত, গত শুক্রবার (৪ অক্টোবর) রাতে মাটিরাঙ্গা পৌরসভার ১নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মো: এমরান হোসেনের বাড়ি থেকে নগদ ৭৫ হাজার টাকা, এক ভরি ১০ আনা স্বর্ণ ও তার ব্যাবহৃত মোটরসাইকেলটি চুরি হওয়ার ঘটনায় তিনি মুক্তিযোদ্ধা সন্তান মো: শফিকুল ইসলাম মিলনসহ দুই জনের নামোল্লেখ করে অজ্ঞাতনামা ৭-৮জনের বিরুদ্ধে মাটিরাঙ্গা থানায় একটি লিখিত অভিযোগ করেন।

আরও পড়ুন
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।