রাঙামাটির রাজবন বিহারে কঠিন চীবর দান অনুষ্ঠিত

রাঙামাটির ঐতিহ্যবাহী রাজবন বিহারে বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বীদের অন্যতম ধর্মীয় উৎসব কঠিন চীবর দান উৎসব অনুষ্ঠিত হয়েছে।

আজ শুক্রবার (২৭ নভেম্বর) দিনব্যাপী অনুষ্ঠানে দ্বিতীয় পর্বে উৎসবের মূল আকর্ষণ কঠিন চীবরটি রাজবন বিহারের অধ্যক্ষ প্রজ্ঞালংকার মহাস্থবিরের হাতে তুলে দেন রাজবন বিহারের উপাসক উপাসিকা পরিষদের সহ-সভাপতি গৌতম দেওয়ান।

এ সময় লাখো পুণ্যার্থীর সাধুবাদে মুখরিত হয় রাজবন বিহার আশপাশ এলাকা। অনুষ্ঠানে তিন পার্বত্য জেলার বৌদ্ধ পন্ডিত ভিক্ষুগণ পূণ্যার্থীদের উদ্দেশ্যে ধর্মদেশনা দেন।

উক্ত অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন রাঙামাটি জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান বৃষকেতু চাকমা, পার্বত্য মন্ত্রণালয়ের সাবেক উপমন্ত্রী মনিস্বপন দেওয়ান, রাঙামাটি জেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান নিখিল কুমার চাকমা, সাবেক যুগ্ম জজ অ্যাড. দীপেন দেওয়ান প্রমুখ।

দিনব্যাপী অনুষ্ঠানে কঠিন চীবর দান ছাড়াও, বুদ্ধমূর্তিদান, সংঘদান, অষ্টপরিষ্কার দান, কল্পতুরু দান, বিশ্বশান্তি প্যাগোডার অর্থ দান, হাজার প্রদীপ দান অনুষ্ঠান।

পুণ্যার্থীদের পঞ্চশীল প্রদান করেন রাজবন বিহার অধ্যক্ষ প্রজ্ঞালংকার মহাস্থবির। গৌতম বুদ্ধের সময় এক পুণ্যবতি সেবিকা বিশাখা কর্তৃক প্রবর্তিত নিয়মে তুলা থেকে সুতা ও সুতা থেকে বেইন বুনে চীবর তৈরি করা হয়।

১৯৭৪ সাল থেকে রাঙামাটি রাজবন বিহারে চীবর দান হয়ে আসছে। এ উৎসবে যোগ দিতে প্রতি বছর দেশ-বিদেশ থেকে লাখো মানুষ ভিড় জমায় রাজবন বিহারে। তবে এ বছর করোনার কারণে এবার সে রীতি অনুযায়ী এ উৎসব অনুষ্ঠিত না হলেও পুণ্যার্থীর ভিড় ছিল চোখে পড়ার মতো।

আরও পড়ুন
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।