রোয়াংছড়িতে ৪ ডাকাত আটক

রোয়াংছড়িতে আটক চার ডাকাত
বান্দরবানের রোয়াংছড়ি উপজেলা রামজাদি এলাকার ময়না তলিতে রাতে ডাকাতির প্রস্তুতিকালে রোয়াংছড়ি থানা পুলিশ অভিযান চালিয়ে ৪ যুবককে আটক করেছে।
পুলিশ সূত্রে জানা যায়, গোপন সংবাদ ভিত্তিতে রোয়াংছড়ি থানা অফিসার ইনচার্জ নির্দেশে এসআই মাহ্বুব খান নেতৃতে রামজাদি ও ময়নাতলি এলাকার অভিযান চালিয়ে কালাঘাটা বড়ুয়া টেক রূপনগর নতুন পাড়া মো: নবী হোসেনের ছেলে জাহাঙ্গীর আলম (৩২) কে আটক করেন। এরপর একে একে কালাঘাটা বড়ুয়া টেক রাণী চর বাসিন্দার মো: আলী ছেলে মো: ফিরোজ (১৯),একই গ্রামের মো: আব্দুল আলীমের ছেলে মো: আব্দুল জব্বার প্রকাশ লেদু (১৯), পেশকার বা রাজার ঘোনা বাসিন্দার মো: মৃত জাকির হোসেনের (কাইত্যাং ক্যাং) ছেলে মো: রুবেল (২২) ডাকাতের হাতে থাকা ধারালো অস্ত্র ও লাঠিসহ হাতে নাতে আটক করেন পুলিশ।
স্থানীয়রা জানান, সন্ধ্যা নামলে ওই জাদি ও ময়নাতলি এলাকাতে বহুদিন ধরে চাঁদাসহ ডাকাতি করছে একটি গ্রুপ। একারণে এলাকার মানুষ সন্ধ্যা নামলে যাতায়াত করে না। বেশি জরুরি হলে তখন জীবন বাজি রেখে ঝুঁকি নিয়ে চলাচল করে। রোয়াংছড়ি-বান্দরবান সড়কের মাত্র এ পথ ধরে যাতায়াত করতে হয়। সন্ধ্যা ৬টা থেকে এ পথ দিয়ে যাতয়াত করা খুবই বিপদজনক হয়ে পড়ে। বিশেষ করে ছোটখাট গাড়ি নিয়ে যাতায়াত করা সমস্যা। ডাকাতরা পেলে গাড়িসহ যাত্রীদের থাকা টাকা ও মালামাল লুট করে নিয়ে যায়। শুধু মালামাল লুট করে ও ক্ষান্তহননি যাত্রীদেরকে মারধর করে ঘটনাগুলো প্রকাশ না করার প্রাণনাশে হুমকি দেয় বলে জানান এলাকার সংশ্লিষ্টরা।
নোয়াপতং ইউনিয়নে ৬নং ওয়ার্ড মেম্বার মেচিং মারমা জানান, গত ক’মাস আগে বান্দরবান থেকে প্রায় সন্ধ্যা দিকে বাড়িতে ফেরার পথে ওই ময়নাতলি এলাকার পৌঁছলে গাড়িকে গতিরোধ করে এলোপাতাড়ি ভাবে মারধর ও মারাত্মক ভাবে আহত করে, টাকাসহ মালামালগুলো লুট করে নিয়ে যায়।
রোয়াংছড়ি থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো: শহিদুল ইসলাম চৌধুরী সত্যতার স্বীকার করে বলেন, গত ভোর রাতে অভিযান চালিয়ে ডাকাতি প্রস্তুতিকালে লাঠিসোঠা ও ধারালো অস্ত্রসহ ৪ডাকাতকে আটক করেছে।

আরও পড়ুন

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।