সেনাবাহিনীর ভয় দেখিয়ে মহিলা মেম্বারকে ধর্ষণ!

সেনাবাহিনীর লোকজন তোমাকে খুঁজছে, হয়ত তোমাকে গ্রেফতার করবে! এই ভয় দেখিয়ে লংগদু ইউপি মহিলা মেম্বারকে ধর্ষনের অভিযোগ উঠেছে ঝংকু চাকমা ওরফে বাবলু,র (৩৬) বিরুদ্ধে। ভিকটিমের অভিযোগের ভিত্তিতে ইতোমধ্যে গ্রেফতার করা হয়েছে ঝংকুকে। অভিযুক্ত ঝংকৃ লংগদু উপজেলার ছোট কাট্টলী এলাকার বাসিন্দা।

জানা যায়, ঝংকু চাকমা লংগদু উপজেলার এক ইউপি মেম্বার কে মোবাইল ফোনে সেনাবাহিনীর ভয় দেখিয়ে বলেন, সেনাবাহিনীর লোকজন তোমাকে খুঁজছে, হয়ত তোমাকে গ্রেফতার করবে। এতেই ভয় পেয়ে ইউপি মেম্বার লংগদু থেকে রাঙ্গামাটি শহরে এসে রিজার্ভ বাজারের গ্রীনহীল নামক একটি হোটেলে আত্মগোপন করেন। এ সুযোগে বুধবার রাত ১২টার দিকে অভিযুক্ত ঝংকু ইউপি মেম্বারকে হোটেলের তৃতীয় তলায় নিয়ে যায় এবং কোমল পানীয়ের সাথে ঘুমের ঔষধ মিশিয়ে অচেতন করে ধর্ষন করেন। পরে ইউপি মেম্বারের জ্ঞান ফিরে বুঝতে পারেন তাকে ধর্ষন করা হয়েছে এবং তিনি চেকআপের জন্য বৃহস্পতিবার সকালে রাঙ্গামাটি সদর হাসপাতালে ডাক্তারের শরনাপন্ন হন। সেখান থেকে তিনি বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় রাঙ্গামাটি কোতয়ালী থানায় অভিযোগ দায়ের করেন।

রাঙ্গামাটি কোতয়ালী থানার ওসি জাহেদুল হক রনি ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, ধর্ষনের অভিযোগে ঝংকু চাকমাকে বৃহস্পতিবার রাতে অভিযান চালিয়ে গ্রেফতার করা হয়েছে। তিনি আরো জানান, অভিযুক্ত ঝংকু চাকমার নামে আগেও আরেকজনের স্ত্রীকে ভাগিয়ে নিয়ে যাওয়ার একটি মামলা রয়েছে। বর্তমানে ইউপি মহিলা মেম্বারকে ভিকটিম সাপোর্ট সেন্টারে নিরাপদে রাখা হয়েছে।

আরও পড়ুন

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।