হেফাজত সরকারের ‘কনসালটেন্ট’

ভাস্কর্য অপসারণের প্রতিবাদে রাঙামাটিতে বিক্ষোভ মিছিল
হেফাজত ইসলামকে সরকারের কনসালটেন্ট মন্তব্য করে ছাত্র ইউনিয়নের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য ও রাঙামাটি জেলার সভাপতি অভিজিৎ বড়ুয়া বলেন, ভোটের রাজনীতিতে টিকে থাকার জন্য সরকার উগ্র মৌলবাদিদের সাথে আপোষ করে পুনরায় ক্ষমতায় আসীন হওয়ার দিবাস্বপ্ন দেখছে।
শনিবার সকালে রাঙামাটি জেলা প্রশাসনের কার্যালয়ের সামনে ভাস্কর্য অপসারণ, বিক্ষোভ মিছিলে পুলিশি হামলা ও নেতাকর্মীদের আটকের প্রতিবাদে প্রগতিশীল ছাত্রজোটের মানববন্দন কর্মসূচিতে এসব মন্তব্য করেন তিনি।
জেলা ছাত্র ইউনিয়নের সভাপতি অভিজিৎ বড়ুয়ার সভাপতিত্বে ও শহর ছাত্র ফ্রন্টের সাধারণ সম্পাদক মধুলাল তনচংগ্যার সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন,জেলা ছাত্র ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক মিশু দে,প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক প্রান্ত রনি,সদস্য বিধান চাকমা, শহর ছাত্রফ্রন্টের আহবায়ক আশাধন চাকমা,সদস্য সুনীল চাকমা ও সুজন তঞ্চংগ্যা প্রমুখ।
বক্তারা বলেন, সরকার হেফাজতের একের পর দাবি মেনে দেশকে সাম্প্রদায়িক রাষ্টে পরিণত করেছে।পাঠ্যপুস্তকে ভুল ও প্রগতিশীল লেখকের লেখা বাদ দিয়ে শিক্ষাকে হেফাজতি করণ করেছে। কিন্তু বিগত কোন সরকার এ কাজ করতে সাহস করেনি। সরকার এখন হেফাজতিদের প্রেসক্রিপশনে রাজনীতি করছে বলে দাবি করেন বক্তারা।
বক্তারা মানববন্দন থেকে ছাত্রনেতাদের নিঃশর্ত মুক্তি ও ভাস্কর্য পুনঃস্থাপনের জোর দাবি জানান এবং তা নাহলে অবিলম্বে ছাত্র ইউনিয়ন ও প্রগতিশীল ছাত্রজোট কঠোর আন্দোলনের দিকে এগিয়ে যাবে।
মানববন্দন শেষে জেলা প্রশাসনের কার্যালয় থেকে এক বিক্ষোভ মিছিল শুরু হয়। মিছিলটি শহরের প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে বনরুপায় গিয়ে শেষ হয়।

আরও পড়ুন
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।