পাহাড়ে সংঘাত বন্ধের দাবিতে সমাবেশ

পার্বত্য চট্টগ্রামের আঞ্চলিক রাজনৈতিক দলগুলোর মধ্যেকার চলমান সংঘাত বন্ধ করে বৃহত্তর জুম্ম জাতীয় ঐক্য গড়ার দাবি জানিয়ে সমাবেশ করেছে খাগড়াছড়ি এবং রাঙামাটির কাউখালী,বাঘাইছড়ি ও সাজেক এলাকার জনসাধারণ। আজ শুক্রবার (৪ অক্টোবর ২০১৯) সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

পৃথক পৃথকভাবে অনুষ্ঠিত এসব সমাবেশ থেকে অবিলম্বে সংঘাত বন্ধ করে বৃহত্তর জুম্ম জাতীয় ঐক্য গড়ে তোলার জন্য জেএসএস, ইউপিডিএফ ও জেএসএস(লারমা) এর প্রতি আহবান জানানো হয়েছে। গণতান্ত্রিক যুব ফোরাম কেন্দ্রিয় কমিটির সহ সাধারণ সম্পাদক বরুন চাকমা প্রেরিত এক প্রেসবিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানা যায়।

খাগড়াছড়ি : আজ সকাল সাড়ে ১১টায় খাগড়াছড়ি সদর উপজেলার পেরাছড়া এলাকায় সংঘাত বন্ধের দাবিতে আয়োজিত সমাবেশে ‘ইউপিডিএফ, জেএসএস ও জেএসএস (লারমা)-এর মধ্যে ঐক্যের’ দাবি সম্বলিত ব্যানার ও প্ল্যাকার্ড নিয়ে এলাকার জনসাধারণ মিছিল সহকারে মিলিত হয়। ব্যানারে আহবান জানিয়ে লেখা ছিল “অবিলম্বে ভাইয়ে ভাইয়ে সংঘাত বন্ধ কর,মুক্তির লক্ষ্যে বৃহত্তর জাতীয় ঐক্য গড়ে তোল”।

সমাবেশে বক্তব্য রাখেন পেরাছড়া ইউনিয়নের ৪নং ওয়ার্ডের মেম্বার কান্তি বিকাশ চাকমা ও এলাকার মুরুব্বী সুমন চাকমা। এছাড়া সমাবেশে পেরাছড়া ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ডের মেম্বার জোসনা কান্তি ত্রিপুরাসহ এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ ও নারী-পুরুষ সমাবেশে উপস্থিত ছিলেন।

বক্তারা আঞ্চলিক দলগুলোর মধ্যে চলমান সংঘাত বন্ধের দাবি জানিয়ে বলেন, সংঘাত জাতির জন্য কখনো মঙ্গলজনক হতে পারে না। এই সংঘাতের ফলে পার্বত্য চট্টগ্রামে বহু প্রতিভাবান মানুষকে আমরা হারিয়েছি। অনেক মা-বোন স্বামীহারা-পুত্র হারা হয়েছেন। যা জাতির জন্য চরম বিপর্যয়। এই জাতি ধ্বংসাত্মক সংঘাত আর চলতে পারে না।

তারা অচিরেই সংঘাত বন্ধ করে বৃহত্তর জাতীয় ঐক্য গড়ে তোলার জন্য দলগুলোর প্রতি আহবান জানিয়ে বলেন, আমরা ঐক্যবদ্ধ আন্দোলন দেখতে চাই। আপনারা ঐক্যবদ্ধ হোন, জনগণ আপনাদের সাথে থাকবে।

কাউখালী (রাঙামাটি) :
আজ দুপুর ১২টায় এলাকার বিভিন্নস্তরের নারী পুরুষ সংঘাত বন্ধের দাবি সম্বলিত ব্যানার ও প্ল্যাকার্ড নিয়ে মিছিল সহকারে সমাবেশে মিলিত হয়।
“বিভেদে পরাজয়, ঐক্যে হবে বিজয়” শ্লোগানে অনুষ্ঠিত সমাবেশে এলাকার বিশিষ্ট সমাজসেবক ভাগ্যবান চাকমার সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন কাউখালী উপজেলা পরিষদের সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান মংসুইউ চৌধুরী(ডুমং),সমাজসেবক মতিলাল চাকমা, মংক্যাউ কার্বারী, নারী কার্বারী খ্যাইমা প্রু মারমা ও বিশিষ্ট মুরুব্বী হরিধর চাকমা।

বক্তারা বলেন,পার্বত্য চট্টগ্রামে অধিকারকামী আঞ্চলিক রাজনৈতিক দলগুলোর মধ্যেকার সংঘাতের কারণে জাতি চরম ক্ষতির শিকার হচ্ছে। এ অবস্থা চলতে থাকলে জাতির অস্তিত্ব সংকটের মুখে পড়বে। তাই এই সমাবেশ থেকে আমরা অবিলম্বে চলমান সংঘাত বন্ধ করে ঐক্যবদ্ধ হয়ে জাতীয় ঐক্য গড়ে তোলার জন্য দলগুলোর প্রতি জোর আহবান জানাচ্ছি।

বাঘাইছড়ি : আজ বিকেলে বাঘাইছড়ি সদর এলাকায় সংঘাত বন্ধের দাবিতে বাঘাইছড়ি এলাকাবাসীর উদ্যোগে আয়োজিত সমাবেশে রাখেন এলাকার কার্বারী রনজিত চাকমা ও সুরেন চাকমা প্রমুখ। তারা অবিলম্বে সকল বিভেদ ও দ্বন্ধ পরিহার করে জুম্ম জাতীয় ঐক্য গড়ে তুলতে দলগুলোর প্রতি আহবান জানান।
সাজেক : সাজেক ইউনিয়নের করল্যাছড়ি স্কুল মাঠে আজ দুপুর ১২টায় সাজেক এলাকাবাসীর উদ্যোগে একই দাবিতে সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

এতে এলাকার মুরুব্বী দশরথ চাকমার সভাপতিত্বে ও নিমেশ চাকমার সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন এলাকার কার্বারী বিশ্বমনি চাকমা ও অরুণ জয় চাকমা প্রমুখ। এছাড়া গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গসহ এলাকার বিভিন্ন স্তরের নারী-পুরুষ সমাবেশে উপস্থিত ছিলেন।

বক্তারা বলেন,আঞ্চলিক দলগুলোর মধ্যেকার সংঘাতের সুযোগ নিয়ে শাসকগোষ্ঠী ভূমি বেদখল থেকে শুরু করে জুম্ম জাতির অস্তিত্ব ধ্বংস করতে নানা ষড়যন্ত্রে লিপ্ত রয়েছে। তাই এই সংঘাত আর কোনভাবেই চলতে দেয়া যায় না। তারা অবিলম্বে সংঘাত বন্ধ করে ঐক্যবদ্ধ হয়ে জাতির অস্তিত্ব রক্ষার লড়াই জোরদার করার জন্য ইউপিডিএফ, জেএসএস ও জেএসএস(লারমা)-এর প্রতি আহবান জানান।

আরও পড়ুন

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।