প্রেমে বিচ্ছেদ হওয়ায় ইতিকে হত্যা

খাগড়াছড়ি সরকারি কলেজের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্রী ইতি চাকমাকে প্রতিশোধ নিতে তার সাবেক প্রেমিকেই হত্যা করেছে বলে জানিয়েছেন খাগড়াছড়ির পুলিশ সুপার(এসপি) আলী আহমদ খান। সোমবার বিকেলে খাগড়াছড়ির জ্যেষ্ঠ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আবু সুফিয়ান মো: নোমানের খাস কামরায় হত্যাকারী তুষার চাকমা(১৮) ১৬৪ ধারায় জবানবন্দী দিয়েছে বলে জানান এসপি।
ইতি চাকমার সাবেক প্রেমিক সহপাঠী রনি চাকমার সাথে প্রেম বিচ্ছেদের প্রতিশোধ নিতে তাকে হত্যা করা হয়। হত্যাকাÐের দিন ইতি চাকমার বাসা খালি ছিল। সে সুযোগকে কাজে লাগিয়ে রনি চাকমার নেৃতত্বে তুষার চাকমা সহ অন্যান্যরা ইতি চাকমাকে প্রথমে শ্বাসরোধ করে। হত্যা নিশ্চিত হতে তার গলা কেটে দেয়া হয়। এসময় ভেতরে ৩ জন এবং বাইরে ২ জন ছিল। পরবর্তীতে হত্যাকাÐকে ভিন্ন দিকে প্রভাবিত করতে হত্যাকারীরা ইউপিডিএফ সমর্থিত পিসিপি সহ বিভিন্ন সংগঠনের আন্দোলন সংগ্রামে অংশ নেয় এবং বক্তব্য দেয় বলে আদালতে স্বীকার করেছে বলে জানিয়েছেন এসপি আলী আহমদ খান।
খাগড়াছড়ির ডিবি’র পরিদর্শক(ওসি) আব্দুর রকিব জানান, মোবাইল ট্যাগিং সহ নানা কৌশল অনুসরণ করে গতকাল রোববার বিকেলে খাগড়াছড়ি সদরের চেঙ্গী স্কোয়ার এলাকা থেকে সদর থানার ওসি তারেক মোহাম্মদ আব্দুল হান্নান ও এসআই আব্দুল্লাহ আল মাসুদের সহায়তায় হত্যাকারী তুষার চাকমাকে আটক করা হয়। সোমবার বিকেল ৪টায় আদালতে সে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দী দিয়েছে। ১৬৪ ধারায় জবানবন্দী শেষে আদালত তাকে কারাগারে প্রেরণের আদেশ দেয়। আটককৃত তুষার চাকমার রাঙামাটির বাঘাইছড়ি উপজেলার বালুঘাট এলাকার সুনীল চাকমার ছেলে। তুষারের মা নিরূপা চাকমা ইউপিডিএফ সমর্থিত সাজেক নারী সমাজ সংগঠনের নেত্রী।
প্রসঙ্গত, গত ২৭ ফেব্রæয়ারী রাতে জেলা সদরের আরামবাগ এলাকায় ভগ্নিপতির ভাড়া বাসায় বোন ও ভগ্নিপতির অনুপস্থিতিতে গলা কেটে হত্যা করা হয় খাগড়াছড়ি সরকারি কলেজের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্রী ইতি চাকমাকে।

আরও পড়ুন
2 মন্তব্য
  1. Hilki Marma বলেছেন

    পাসা গ রম ডিম ডুকা, তখন অনুভব ক রবে ধষন কি জিনিস।

  2. Kevin S Stive বলেছেন

    এই পাগলা কুত্তারকে টুকরো টুকরো করে কেটে রাস্তা আর এক পাগলা কুত্তারকে খাওয়ানো উচিত,,জানোয়ারে বাচ্চা মানুষ নামে কলংক!!

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।