বান্দরবানের ৪৮০ পরিবার পেল প্রধানমন্ত্রীর খাদ্য সহায়তা

কোভিড ১৯ এর কারনে বান্দরবানে কর্মহীন ও অসহায় দরিদ্র ৪৮০ পরিবারকে দেয়া হলো প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ত্রান সহায়তা। ত্রাণ হিসেবে দেয়া হয় ৫ কেজি চাল, ছোলা, সয়াবিন তেল, চিনি সহ মোট ৮টি উপাদান।

শনিবার (২৪) সকালে বান্দরবান জেলা প্রশাসক কার্যালয় প্রাঙ্গণে কর্মহীন ও দরিদ্র মানুষের হাতে এ ত্রাণ তুলে দেন পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন, জেলা প্রশাসক ইয়াছমিন পারভীন তিভরীজি, পুলিশ সুপার জেরিন আক্তার পৌর মেয়র ইসলাম বেবী এবং প্রশাসনের উর্দ্ধতন কর্মকর্তারা

পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং এমপি বলেন, প্রধানমন্ত্রীর কারণেই দেশের মানুষ আজ কঠোর লকডাউন ও করোনার এই দু:সময়ে সরকারি সহায়তা পাচ্ছে। প্রধানমন্ত্রী সব সময় জনগণের পাশে থাকেন। করোনা থেকে বাঁচতে হলে অবশ্যই স্বাস্থ্যবিধি মানবে হবে। পড়তে হবে মাস্ক। নিজেকে বাঁচতে হবে অপরকেও বাঁচতে হবে।

এদিকে, বান্দরবানের জেলা প্রশাসক ইয়াছমিন পারভীন তিবরীজি জানান, কর্মহীন ও দরিদ্রদের জন্য ৩ কোটি ৬৩ লক্ষ ৩৬ হাজার ৯০০ টাকা সহায়তা পাওয়া গেছে। জেলা ও উপজেলার কর্মহীন ও দরিদ্র পরিবারগুলো পর্যায়ক্রমে এ ত্রাণ পাবে।

জেলা ত্রাণ ও পূর্ণবাসন কর্মকর্তা (সহকারি কমিশনার) সিমন সরকার জানান, বান্দরবানে কর্মহীন ও অসহায় দরিদ্র পরিবারের জন্য ৩ কোটি ৬৩ লক্ষ ৩৬ হাজার ৯০০ টাকা বরাদ্দ পাওয়া গেছে। এর মধ্যে ভিজিএফ বরাদ্দ পাওয়া গেছে ৭ উপজেলার জন্য ২ কোটি ৩১ লক্ষ ২১ হাজার টাকা, লামা পৌরসভার জন্য ১৩ লক্ষ ৮৬ হাজার ৪৫০ টাকা এবং বান্দরবান পৌরসভার জন্য ২০ লক্ষ ৭৯ হাজার ৪৫০ টাকা।

এছাড়াও ত্রাণ সহায়তা (নগদ) পাওয়া গেছে জেলার ৩৩টি ইউনিয়নের জন্য ৮২ লক্ষ ৫০ হাজার টাকা, জেলা প্রশাসক থেকে ১ লক্ষ ৫০ হাজার টাকা, লামা পৌরসভার জন্য ১ লক্ষ ৫০ হাজার টাকা এবং বান্দরবান পৌরসভার জন্য ২ লক্ষ টাকা মোট ৮৭ লক্ষ ৫০ হাজার টাকা। এছাড়াও প্রধানমন্ত্রীর সহায়তা পাওয়া গেছে ১০ লক্ষটাকা।

আরও পড়ুন
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।