বান্দরবানে বন্যা ও পাহাড় ধসের আশঙ্কা

টানা বৃষ্টিতে অনেকটা জনমানব শূন্য বান্দরবান শহর
বান্দরবানে তিনদিনের টানা বৃষ্টিতে জনজীবন বিপর্যস্থ হয়ে পড়েছে। বৃষ্টির কারনে জেলার নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হওয়ার আশঙ্কায় এবং পাহাড় ধসের আশঙ্কা থেকে আতংকে দিন পার করছে স্থানীয়রা।
ভারী বৃষ্টি শুরু হওয়ার কারনে জেলার সাংগু ও মাতামুহুরী নদীর পানি বৃদ্ধি পেয়েছে, ফলে বৃষ্টি অব্যাহত থাকলে জেলার নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হতে পারে। জেলা শহরের ইসলামপুর,আর্মিপাড়া,শেরে বাংলা নগরসহ বিভিন্ন এলাকা প্লাবিত হওয়ার সম্ভবনা দেখা দিয়েছে।
এদিকে টানা বৃষ্টির কারনে বান্দরবানে লামাসহ বিভিন্ন উপজেলায় পাহাড়ের পাদদেশে ঝুঁকিপূর্ন বসবাসকারীদের সরে যেতে মাইকিং করেছে প্রশাসন, খোলা হয়েছে আশ্রয় কেন্দ্র। প্রতিবছর বর্ষা মৌসুমে অতি বৃষ্টির কারণে পাহাড় ধসে বান্দরবানে নিহত ও আহত হওয়ার ঘটনা ঘটে।
অন্যদিকে ভারী বর্ষণে বান্দরবানের থানচি উপজেলার সাঙ্গু নদীর পানির প্রবাহ বৃদ্ধি পাওয়ার ফলে যাতায়ত ঝুঁকির কারনে উপজেলার পর্যটন কেন্দ্রগুলোতে পর্যটক যাতায়াতে বন্ধ করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন থানচি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) আরিফুল হক মৃদুল ।
বান্দরবানের জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ দাউদুল ইসলাম পাহাড়বার্তা’কে বলেন,ম্যাজিষ্ট্রেট ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাদের নেতৃত্বে আমরা ঝুঁকিপূর্ন এলাকায় বিশেষ টিম পাঠিয়েছি,ঝুঁকিপূর্ন বসবাসকারীরা যাতে নিরাপদ আশ্রয়ে চলে আসে।

আরও পড়ুন

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।