স্বজনদের অভিযোগঃ রোয়াংছড়ির হত্যাকান্ড পরিকল্পিত

logo-folaapবান্দরবানের রোয়াংছড়ি উপজেলার আলিখ্যং ইউনিয়নের অংগ্যপাড়ায় মঙ্গলবার রাতে সন্ত্রাসী সন্দেহে দুই যুবককে গণপিটুনি দিয়ে হত্যার বিষয়টি পরিকল্পিত খুন বলে অভিযোগ করেছে নিহত উক্যহ্লা মার্মা ও ক্যাহ্লাথুই মার্মা এর পরিবারের লোকজন। গত ৮ সেপ্টেম্বর বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় নিহত দুইজনকে দরদরী নয়া মার্মা পাড়া সংলগ্ন শশ্মানে দাহ করা হয়েছে। নিহত দুজনের বাড়ি লামা উপজেলার রুপসীপাড়া ইউনিয়নের ৪নং ওয়ার্ড দরদরী নয়া মার্মা পাড়ায়। অপরদিকে নিহত উক্যহ্লার স্ত্রী মেনুংচিং মার্মা বাদী হয়ে রোয়াংছড়ি থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেছে।
নিহত উক্যহ্লা মার্মার ছোট ভাই মংছিং হ্লা মার্মা জানান, তার বড় ভাই উক্যহ্লা মার্মা রোয়াংছড়ি উপজেলার আলিখ্যং ইউনিয়নের অংগ্যপাড়ায় বিয়ে করে সাত বছর যাবৎ সেখানে ঘর সংসার করছে। উক্যহ্লা মার্মার স্ত্রী মেনুংচিং মার্মা অংগ্যপাড়া কারবারী আচেম প্রু মার্মার ছোট ভাই মৃত থোয়াংগ্য প্রু মার্মার মেয়ে। যেহেতু উক্যহ্লা মার্মা উক্ত অংগ্যপাড়ার জামাই তাই কিভাবে সে সন্ত্রাসী হয় ?
তিনি আরো বলেন, মূলত অংগ্যপাড়া কারবারী আচেম প্রু মার্মার ছেলে থোয়াইচিমং মার্মা উক্যহ্লা মার্মার স্ত্রী মেনুংচিং মার্মার জায়গা জমির লোভে তার ভাই উক্যহ্লাকে হত্যা করেছে। উক্যহ্লা মার্মা তার শ্বশুর বাড়ি এলাকায় দিনমজুরী করে জীবিকা নির্বাহ করত।

রোয়াংছড়িতে নিহতদের স্বজন
রোয়াংছড়িতে নিহতদের স্বজন
অপর নিহত ক্যাহ্লাথুই মার্মার ছোট ভাই ক্য প্রু অং মার্মা বলেন, আমার বড় ভাই রোয়াংছড়ি উপজেলার আলিখ্যং ইউনিয়নের অংগ্যপাড়ায় চারমাস আগে দিনমজুরী করতে যায়। অংগ্যপাড়া কারবারী আচেম প্রু মার্মার ছেলে থোয়াইচিমং মার্মা দা দিয়ে কুপিয়ে উক্যহ্লা মার্মাকে হত্যা করলে বিষয়টি দেখে ফেলে আমার বড় ভাই ক্যাহ্লাথুই মার্মা। উক্যহ্লা মার্মা হত্যার স্বাক্ষী মুছে ফেলতে পুনরায় কারবারী আচেম প্রু মার্মার ছেলে থোয়াইচিমং মার্মা আমার ভাইকে খুন করে। বিভিন্ন পত্র-পত্রিকায় আমার ভাই ক্যাহ্লাথুই মার্মার নাম ভুলে হ্লামং মার্মা লিখা হয়েছে।
এবিষয়ে রোয়াংছড়ি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওমর আলী জানান, নিহতদের মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্ত শেষে তাদের পরিবারের লোকজনের নিকট হস্তান্তর করা হয়।

আরও পড়ুন

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।