কাজী মহতুল হোসাইন যত্নের বিরুদ্ধে রোহিঙ্গা গৃহকর্মীকে ধর্ষণের অভিযোগ

অ্যাডভোকেট কাজী মহতুল হোসাইন যত্ন
ঢাকার ধানমন্ডিতে এক রোহিঙ্গা গৃহকর্মীকে (১৮) ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে বান্দরবানের আইনজীবী কাজী মহতুল হোসাইন যত্নের বিরুদ্ধে। গত শনিবার ধানমন্ডি আবাসিক এলাকার ১১/এ নম্বর সড়কের ৫/এ নম্বর বাসায় এ ঘটনা ঘটে।
এ ঘটনায় নির্যাতিত ওই তরুণী বাদী হয়ে ধানমন্ডি থানায় গৃহকর্তা অ্যাডভোকেট কাজী মহতুল হোসাইন (৫৫) বিরুদ্ধে একটি মামলা করেছেন। গত রোববার শারীরিক পরীক্ষার জন্য ওই রোহিঙ্গা গৃহকর্মীকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে (ওসিসি) পাঠিয়েছে পুলিশ। তবে রাতে এই রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত অভিযুক্ত আইনজীবি যত্নকে গ্রেপ্তার করতে পারেননি তারা।
মামলার এজাহারে বাদী নির্যাতিতা গৃহকর্মী উল্লেখ করেন, চার বছর আগে মিয়ানমার থেকে কক্সবাজার আসার পথে পুলিশের কাছে আটক হন ওই গৃহকর্মী। এরপর তাকে বান্দরবন কোর্টে সোপর্দ করা হয়। একপর্যায়ে অভিযুক্ত অ্যাডভোকেট কাজী মহতুল হোসাইন যত্ন তরুণীকে ছাড়িয়ে আনেন এবং তার বাসায় গৃহকর্মীর কাজ দেন। এরপর থেকে বিভিন্ন সময় প্রাণনাশের হুমকি দিয়ে তাকে জোর করে পাশবিক নির্যাতন করতেন এবং তা গোপন রাখার জন্য ভয়ভীতি দেখাতেন কাজী মহতুল হোসাইন যত্ন। সর্বশেষ গত শনিবার সকাল ৭টায় তার ধানমন্ডির ওই বাসায় অভিযোগকারী তরুণীকে ধর্ষণ করেন ওই আইনজীবী।
ধানমন্ডি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আব্দুল লতিফ বলেন, ফরেনসিক পরীক্ষার জন্য অভিযোগকারী গৃহকর্মীকে ঢামেক হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। অভিযুক্তকে গ্রেপ্তারে আমাদের চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।
প্রসঙ্গত,গত বছরের ৩০ জানুয়ারি বিএনপির দফতরের দায়িত্বপ্রাপ্ত যুগ্ম মহাসচিব অ্যাডভোকেট রুহুল কবির রিজভী এক পত্রে দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গ ও স্বার্থবিরোধী তৎপরতায় লিপ্ত থাকার কারণে বান্দরবান জেলা বিএনপির সদস্য অ্যাডভোকেট কাজী মহতুল হোসেন যত্নকে বিএনপির সব পর্যায়ের পদ থেকে বহিষ্কার করা হয়।

আরও পড়ুন
4 মন্তব্য
  1. Md Sayad বলেছেন

    কি বলেন?

  2. Ratan Dey Shown বলেছেন

    ভাই মামলা হয়েছে,,??

  3. Shaiful Bandarban বলেছেন

    উনিতো সবসময় বান্দরবানে আছেন, ঢাকা যান না প্রায় অনেকদিন হয়, এসব করার সময় পেলেন কই, যারা এসব অপপ্রচার চালিয়ে যাওয়াভাল নয়

  4. Shaiful Bandarban বলেছেন

    গত শনিবার সকাল 7টায় তিনিতো বালাঘাটা ব্রিগেডের সামনে জায়গা জমি নিয়ে বিরোধে মাথা ঘামাচ্ছিলেন, মামলা সঠিক কিন্তু ঘটনা মিথ্যা, আসলে রোহিঙ্গারা বদমায়েশ টাইপের জাত, তাদের উপকার করতে নেই, তাদের একটু স্নেহ করলে, ধংস করার চেষ্টা করে, তাই তাদের উপর আল্লাহর এত গজব নাজিল হচ্ছে

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।