কাপ্তাইয়ে ডায়রিয়ার প্রকোপ বৃদ্ধি: হাসপাতালে ভর্তি ৭ জন

উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান দিলদার হোসেন ডায়রিয়ার আক্রান্তদের দেখতে কাপ্তাই উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লে­ক্সে যান
রাঙামাটির কাপ্তাই উপজেলার ৩ নং চিৎমরম ইউনিয়নের ১ নং ওয়ার্ড উজানছড়িতে প্রায় ১০ জনের অধিক ডায়রিয়ায় আক্রান্তের খবর পাওয়া গেছে। তৎমধ্যে ৭ জনকে শনিবার কাপ্তাই উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লে­ক্সে ভর্তি করা হয়েছে। হাসপাতালে ভর্তি করা হয়,তারা হলেন উজানছড়ি গ্রামের মেসি প্রু মার্মা (৪৫), উমেচাই মার্মা(১৮), মংহ্লা মার্মা(১২), হ্লাহেউ মার্মা(৭), অংবাই মার্মা(৩৫), মাপাইউ মার্মা(৪০) এবং উহাঅংলা মার্মা(৩২)।
কাপ্তাই উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা: মাসুদ উদ্দিন চৌধুরী প্রতিবেদকে ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানান, ছড়ার পানি খেয়ে এই এলাকার বাসিন্দারা ডায়রিয়ার আক্রান্ত হয়েছেন। তিনি আরো জানান, অতি বর্ষনের ফলে উজান থেকে নেমে আসা পানি ছড়াতে যায়, সেই ছড়ার পানিতে বিভিন্ন জীবানু থাকে,এই এলাকার অধিকাংশ অধিবাসী ছড়ার পানি পান করে থাকে,ফলে এই এলাকায় ডায়রিয়ার প্রকোপ বৃদ্ধি পেয়েছে।
উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা জানান, শনিবার ঐ ওয়ার্ডে স্বাস্থ্য কর্মীরা গিয়ে ঘরে ঘরে পানি বিশুদ্ধকরন ট্যাবলেট বিতরন করেছে এবং আক্রান্তদের খাবার স্যালাইন বিতরন করা হয়েছে। তিনি সকলকে বিশুদ্ধ পানি পান করার এবং পানি ফুঁটিয়ে খাবার পরামর্শ দেন। হাসপাতালে ভর্তিকৃতরা সকলে একই এলাকার বলে জানান ৩ নং চিৎমরম ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান খ্যাইসা অং মার্মা।
এদিকে আজ কাপ্তাই উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান দিলদার হোসেন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ডায়রিয়ার আক্রান্তদের দেখতে যান। তিনি জানান, জীবানু যুক্ত পানি পান করে তারা ডায়রিয়ার আক্রান্ত হতে পারে।
চিৎমরম ইউপি চেয়ারম্যান একই এলাকার বাসিন্দা খ্যাইসা অং মার্মা বলেন, এই এলাকার বাসিন্দারা দীর্ঘদিন ধরে ছড়ার পানি পান করে আসছে। হঠাৎ আজ কেনো তারা ডায়রিয়ার আক্রান্ত হলো সেটা স্বাস্থ্য বিভাগের লোকজন তদন্ত করে জানাতে পারবেন। তিনি এলাকাবাসী সকলকে বিশুদ্ধ পানি পান করার জন্য পরামর্শ দেন।

আরও পড়ুন
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।