কাপ্তাইয়ে নৌ বাহিনী স্কুলে ৭ই মার্চের ভাষণ প্রচার

রাঙামাটির কাপ্তাই নৌ বাহিনী স্কুলের আয়োজনে শিক্ষার্থীদের উপস্থিতিতে আনন্দমুখর পরিবেশে ঐতিহাসিক ৭ই মার্চের বঙ্গবন্ধুর ভাষণ প্রচার
জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৭ই মার্চের ঐতিহাসিক ভাষণ জাতিসংঘ শিক্ষা, বিজ্ঞান ও সংস্কৃতি সংস্থা (ইউনেস্কো) কর্তৃক বিশ্ব ঐতিহ্যের দলিল (ওয়ার্ড ডুকুমেন্টারি হেরিটেজ) হিসেবে স্বীকৃতি লাভ করায় আজ ১৭ ডিসেম্বর রাঙামাটির কাপ্তাই নৌ বাহিনী স্কুলের আয়োজনে শিক্ষার্থীদের উপস্থিতিতে আনন্দমুখর পরিবেশে ঐতিহাসিক ৭ই মার্চের বঙ্গবন্ধুর ভাষণ প্রচার, আলোচনা সভা, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান এবং পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠিত হয়।
অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কাপ্তাই নৌ বাহিনী শহীদ মোয়াজ্জম ঘাঁটির অধিনায়ক কমডোর এম মাহবুব-উল ইসলাম। নৌ বাহিনী স্কুল কাপ্তাই এর অধ্যক্ষ ই:কমান্ডার এম রুহুল আমিনের সভাপতিত্বে স্কুলের প্রধান শিক্ষক এম জাহাঙ্গীর আলম এর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে নৌ বাহিনী ঘাঁটির কর্মকর্তা এবং স্কুলের ছাত্র ছাত্রী ও শিক্ষকরা উপস্থিত ছিলেন। আলোচনার শুরুতে স্কুলের সহকারী শিক্ষিকা ফারহানা আক্তার চৌধুরী, ১০ম শ্রেনীর ছাত্র শাহাদাত হক আলী এবং ১০ম শ্রেনীর ছাত্রী মাহফুজা পারভীন বঙ্গবন্ধুর ৭ই মার্চের ভাষণ নিয়ে বক্তব্য প্রদান করেন।
আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে কমডোর এম মাহবুব উল ইসলাম বলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর ৭ই মার্চের ভাষণ বাংগালী জাতিকে ঐক্যবদ্ধ করেছিলো। যার ফলে বাংগালি জাতি স্বাধীনতা যুদ্ধে ঝাঁপিয়ে পড়েছিল। তিনি বলেন,স্বাধীনতার পরবর্তীতে বঙ্গবন্ধু বাংলাদেশ নৌ বাহিনীকে ঢেলে সাজানোর চেষ্টা করেছেন। তিনি প্রথম নৌ বাহিনীতে জাহাজ সংযোজন করেছেন। পরে বিএন স্কুলের ছাত্রছাত্রীরা পরিবেশন করে বঙ্গবন্ধু নিয়ে গান, কবিতা,জারি গান এবং নাচ।

আরও পড়ুন
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।