ক্যথুই মার্মা হত্যায় বান্দরবানে ৬ জনের যাবজ্জীবন কারাদন্ড

৯ বছর পর আদালতের রায়

বান্দরবানের রাজবিলায় ইউনিয়ন থেকে ক্যথুই মার্মা নামে এক ব্যক্তিকে অপহরণের পর হত্যার দায়ে ৬ জনকে যাবজ্জীবন কারাদন্ড দিয়েছে আদালত । এছাড়াও প্রত্যেককে দুই লক্ষ টাকা করে অর্থদন্ডের আদেশ দিয়েছে ।

১৯ নভেম্বর (বৃহস্পতিবার ) দুপুরে বান্দরবান জেলা ও দায়রা জজ আদালতের অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ মো.আবু হানিফ এর আদালত এই রায় দেন।

দন্ডিত ব্যক্তিরা হলেন, উবাসিং মারমা (৩৫), সাচি মং মারমা (২৮), মংহ্লাচিং মারমা (৩০), রেজাউল করীম (৩২), উমংপ্রু মারমা (২৯) আর এই মামলায় এখনো পলাতক রয়েছে পুলুশে মারমা।

আদালত ও আইনজীবিরা জানায়, বান্দরবান সদর উপজেলার রাজবিলা ইউনিয়নের চাউপাড়া থেকে ২০১১ সালের ৬ই এপ্রিল ক্যথুই মারমা নামে এক ব্যক্তিকে অপহরণ করে নিয়ে যায় দূর্বত্তরা। পরের দিন পার্শ্ববর্ত্তী স্থান থেকে অপহৃতের লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। পরে এ ঘটনায় নিহতের স্ত্রী হ্লামেনু মারমা বাদী হয়ে বান্দরবান সদর থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করে।

মামলার দীর্ঘ শুনানী শেষে ১৫জন স্বাক্ষী এবং চার আসামীর স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দির মাধ্যমে গ্রেফতারকৃত ৫জন ও পলাতক ১জন সহ ৬ আসামীকে যাবজ্জীবন কারাদন্ড দেয় । এছাড়াও প্রত্যেক’কে দুই লক্ষ টাকা করে অর্থদন্ডের আদেশ দেয় আদালত।

মামলায় অর্থদন্ডের অর্থ হতে অর্ধেক রাষ্ট্রীয় কোষাগারে এবং অবশিষ্ট অর্ধেকাংশ ভিকটিমের স্ত্রী’কে ক্ষতিপূরণ হিসাবে প্রদানের আদেশও দেয়া হয় |

আরও পড়ুন

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।