খাগড়াছড়িতে বাল্য বিয়ে রুখে দিল প্রশাসন

খাগড়াছড়ির দীঘিনালায় জন্ম নিবন্ধনে বয়স বাড়িয়ে বাল্য বিয়ে দেয়ার সময় তা রুখে দিয়েছে ভ্রাম্যমান আদালত। রোববার দুপুরে উপজেলার মেরুং ইউনিয়নের ছোট হাজাছড়া গ্রামের বাসিন্দা মো: আকবরের ৭ম শ্রেণী পড়ুয়া মেয়েকে কবাখালি এলাকার মামার বাড়িতে এনে বাল্য বিয়ে দেয়া হচ্ছে এমন সংবাদের ভিত্তিতে উপজেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট এবং সহকারী কমিশনার(ভূমি) মো: মাহফুজুর রহমানের ভ্রাম্যমান আদালত বিয়ে বন্ধ করে দেয়। এসময় বাল্য বিয়ে ও ভুয়া জন্ম নিবন্ধন বানানোর দায়ে মেয়ে বাবা আকবরকে আটক করা হয়। পরে মুছলেকা নিয়ে তাকে ছেড়ে দেয়া হয়।
মো: আকবর জানান, মেয়ের বয়স ১৩ বছর কিন্তু স্কুলে যাওয়া আসার সময় বিল্লাহ হোসেন নামে এক বখাটে তাকে উত্ত্যক্ত করত। বখাটের বিরুদ্ধে চেয়ারম্যানকে বিচার দিলেও তিনি বিচার করেনি। তাই মেয়েকে বিয়ে দেয়ার সিদ্ধান্ত নেয়।
দীঘিনালা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা(ইউএনও) শেখ মো. শহীদুল ইসলাম জানান, ভুল স্বীকার করে মেয়েকে ১৮ বছর পূর্ণ না হওয়া পর্যন্ত বিয়ে দিবে না মর্মে অঙ্গিকার নামা দেওয়ায় আকবরকে ছেড়ে দেয়া হয়েছে। মেয়েটি নির্ভয়ে স্কুলে যেতে পারবে এবং বখাটেকে গ্রেফতার করতে পুলিশকে নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

আরও পড়ুন
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।