দীঘিনালা কলেজে হিল উইমেন্স ফেডারেশনের কাউন্সিল সম্পন্ন

খাগড়াছড়ির দীঘিনালা কলেজে হিল উইমেন্স ফেডারেশনের কাউন্সিল
খাগড়াছড়ির দীঘিনালা কলেজে হিল উইমেন্স ফেডারেশনের কাউন্সিল
“পূর্ণ স্বায়ত্ত্বশাসনই পার্বত্য চট্টগ্রামের একমাত্র রাজনৈতিক সমাধান, পার্বত্য চট্টগ্রামে অব্যাহত ভূমি বেদখল ও অস্তিত্ব রক্ষার সংগ্রামে জেগে ওঠো জুম্ম নারী” এই শ্লোগানকে সামনে রেখে হিল উইমেন্স ফেডারেশন এর দীঘিনালা ডিগ্রী কলেজ শাখার কাউন্সিল সম্পন্ন হয়েছে।
মঙ্গলবার বেলা ১১টার দিকে দীঘিনালার বানছড়া উচ্চ বিদ্যালয়ের হলরুমে অনুষ্ঠিত কাউন্সিল অধিবেশনে সভাপতিত্ব করেন চৈতালী চাকমা। জুঁই চাকমার সঞ্চালনায় হিল উইমেন্স ফেডারেশনের খাগড়াছড়ি জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক মিনাকী চাকমা, গণতান্ত্রিক যুব ফোরামের দীঘিনালা উপজেলা শাখার সাংগঠনিক সম্পাদক সুকিরণ চাকমা, পাহাড়ি ছাত্র পরিষদের দীঘিনালা থানা শাখার অর্থ সম্পাদক মিঠুন চাকমা প্রমুখ বক্তব্য রাখেন। অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন মিষ্টি চাকমা।

পার্বত্য চট্টগ্রামে নারী নির্যাতন ও ভূমি বেদখলের মাত্রা দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে উল্লেখ করে হিল উইমেন্স ফেডারেশনের খাগড়াছড়ি জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক মিনাকী চাকমা বলেন, এসবের বিরুদ্ধে নারীদের আরো বেশি সোচ্চার হতে হবে। বর্তমানে তথ্য প্রযুক্তি বিশেষত মোবাইল ও ইন্টারনেটের অবাধ ব্যবহারের ফলে নারীরা বিভিন্নভাবে বিপথে পরিচালিত হচ্ছে। এ বিষয়েও নারীদের আরো বেশি সতর্ক থাকার াাহবান জানান তিনি।
বর্তমান সরকার প্রধান নারী হওয়া সত্ত্বেও পার্বত্য চট্টগ্রামসহ দেশে নারী নির্যাতন থেমে নেই উল্লেখ করে তিনি বলেন,প্রতিনিয়ত কোথাও না কোথাও নারী নির্যাতনের ঘটনা ঘটছে। পার্বত্য চট্টগ্রামের নারী নেত্রী অপহৃত কল্পনা চাকমার সন্ধান সরকার আজো দিতে পারেনি বলেও অভিযোগ করেন তিনি। কাউন্সিল অধিবেশনের দ্বিতীয় পর্বে মিষ্টি চাকমাকে সভাপতি, সোনাকী চাকমাকে সাধারণ সম্পাদক ও সুমিতা চাকমাকে সাংগঠনিক সম্পাদক করে ১১ সদস্য বিশিষ্ট নতুন কমিটি গঠন করা হয়।

আরও পড়ুন
Loading...