নেত্রীর সিদ্ধান্ত অগ্রাহ্যকারীরা আওয়ামী লীগের সদস্য পদ পাবে না : খাগড়াছড়িতে নানক

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য জাহাঙ্গীর কবির নানক বলেছেন, নির্বাচনে দলের বিদ্রোহী প্রার্থী হওয়া মানে নেত্রীর সিদ্ধান্ত অগ্রাহ্য করা। যারা নেত্রীর সিদ্ধান্ত অমান্য করবে তারা কখনো দলের সদস্য পদ পাবেনা, আওয়ামী লীগের নৌকায় উঠতে পারবেনা।

আজ শনিবার (২জানুয়ারি) দুপুরে খাগড়াছড়ি জেলা আওয়ামী লীগ কর্তৃক আয়োজিত বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য ভাংচুর ও অবমাননার প্রতিবাদে আয়োজিত কর্মী সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

বিদ্রোহী প্রার্থীর বিষয়ে ক্ষোভ জানিয়ে তিনি বলেন, দলে একাধিক যোগ্য প্রার্থী থাকতে পারে। তবে নেত্রী যাকে চূড়ান্ত ভাবে মনোনিত করবেন তার পক্ষে কাজ করতে হবে। দলে আভ্যন্তরিন কোন্দল থাকতে পারবেনা। যারা আওয়ামী লীগ করবে, তাদের সকলকে নেত্রীর সিদ্ধান্ত মেনে নৌকার পক্ষে কাজ করতে হবে। দলকে নিয়ম শৃঙ্খলার মধ্যে আনতে, দলের সভানত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন। কোন বিদ্রোহী আওয়ামী লীগ প্রার্থী আর নৌকায় চড়তে পারবেনা। যারা বিদ্রোহ করবে, প্রতিবাদ করবে তারা দলের সদস্য পদ আর পাবেনা বলেও জানান তিনি।

শরনার্থী পুনর্বাসন বিষয়ক টাস্কফোর্স চেয়ারম্যান কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা এমপি’র সভাপতিত্ব এসময় আরা উপস্থিত ছিলেন সংরক্ষিত আসনর নারী সংসদ সদস্য বাসন্তী চাকমা এমপি, খাগড়াছড়ি পার্বত্য জলা পরিষদের চেয়ারম্যান মংসুইপ্রু চৌধুরী অপু, জেলা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি কল্যান মিত্র বড়ুয়া, সাধারণ সম্পাদক ও পৌর নির্বাচনের আওয়ামী লীগ মনোনিত প্রার্থী নির্মলেন্দু চৌধুরী প্রমুখ।

সমাবেশে শেষে তিনি নৌকা প্রতীকের পক্ষে খাগড়াছড়ি শহর গণসংযাগ করেন জাহাঙ্গীর কবির নানক।

আরও পড়ুন
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।