বান্দরবানে আওয়ামী লীগের সমর্থককে গুলি করে হত্যা

বান্দরবান সদর উপজেলার রাজবিলা ইউনিয়নের ক্য চিং থোয়াই নামে একজনকে গুলি করে হত্যা করেছে সন্ত্রাসীরা । তিনি আওয়ামীলীগের একজন সমর্থক ছিলেন । ক্য চিং থোয়াই পেশায় একজন মুদি ব্যবসায়ী । রোববার রাত দেড় টার দিকে রাজবিলা ইউনিয়নের ৫ নং রাবার বাগান এলাকায় এ ঘটনা ঘটে ।
রাজবিলা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ক্য অংপ্রু জানান, নিহতের বড় ভাই ক্য চিং ৫ নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি । শনিবার রাতে তাকে খুঁজতে বাসায় যায় সন্ত্রাসীরা। এ সময় সন্ত্রাসীরা বাসায় তাকে খুঁজে না পেয়ে তার ছোট ভাই ক্যচিং থোয়াইকে ঘুম থেকে উঠিয়ে অস্ত্রের মুখে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে যায় । পরে ৫ নং রাবার বাগানে রাস্তার উপর দাঁড় করিয়ে তাকে গুলি ও ছুড়ি দিয়ে নিশৃংসভাবে হত্যা করেছে সন্ত্রাসীরা । তবে পাহাড়ের কোন সন্ত্রাসী গোষ্ঠী এই হত্যাকাণ্ডে তা নিশ্চিত করে বলতে পারছেন না কেউ ।
বান্দরবান সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শহিদুল ইসলাম জানান, আওয়ামীলীগের এক সমর্থককে গুলি করে হত্যার ঘটনার কথা শুনেছি। ঘটনাস্থলে এরইমধ্যে আমরা পুলিশ পাঠিয়েছি ।
এদিকে গত ৭ মে বান্দরবানে সন্ত্রাসীদের গুলিতে পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতি (জেএসএস) এর বিনয় তঞ্চঙ্গ্যা (৩১) নামে এক কর্মী নিহত হয়েছেন । এই ঘটনায় পুরাধন তঞ্চঙ্গ্যা (৩২) নামে আরো একজনকে অপহরণ করা হয় । তবে পুরোধনকে এখনও উদ্ধার করতে পারেনি পুলিশ ।
এছাড়াও গত ৯ মে জেলার কুহালং ইউনিয়নে জয়মনি তঞ্চঙ্গ্যা নামে পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতির (জেএসএস) আরও এক সমর্থককেও গুলি হত্যা করে সন্ত্রাসীরা । নিহত জয়মনি ছিলেন পেশায় ব্যবসায়ী ।
এদিকে,পাহাড়ে সন্ত্রাসীদের হাতে একাধিক লাশ পড়ায় পাহাড়ের এলাকাগুলোতে আতঙ্ক বিরাজ করছে স্থানীয়, জনপ্রতিনিধি ও রাজনীতিবিদদের মাঝে।

আরও পড়ুন

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।