বান্দরবানে রাজপূণ্যায় এসে কিশোরী গণধর্ষণের শিকার

বান্দরবানের পৌর এলাকায় এক কিশোরী গণধর্ষণের শিকার হয়েছে। গত শুক্রবার রাত এগারটার দিকে শহরের ভিতরে শিশু পার্কের জন্য নির্ধারিত জায়গাতে এ ঘটনা ঘটেছে। ভিকটিমকে জেলা সদর হাসপাতালে শনিবার ভর্তি করা হয়েছে। ভিকটিম ও তার প্রেমিক ওই চার দুর্বৃত্তকে না চিনলেও একজনের নাম কাজল ও অন্যজন নিজেকে নেতা জুয়েল নাম পরিচয় দেওয়াতে এই দুইজনের নাম বলতে পেরেছে। অন্য দুইজনের নাম জানাতে পারেনি।
ভিকটিমের প্রেমিক উপোছাই মারমা জানান, গত শুক্রবার রাতে দুইজনে বান্দরবানের ঐতিহ্যবাহী খাজনা আদায় অনুষ্ঠান রাজপূণ্যাহ মেলায় ঘুরেন। এরপর রাত এগারটার দিকে হাঁটতে হাঁটতে রোয়াংছড়ি বাস ষ্টেশন এলাকার কাছাকাছি পৌছান। প্রস্রাব করার জন্য প্রেমিকাকে রেখে নির্জন জায়গায় যান। ফিরে আসার পর দেখেন চারজন যুবক তার প্রেমিকাকে ভয়ভীতি দেখাচ্ছে। সে প্রতিবাদ জানালে তাকেও প্রাণনাশের ভয়ভীতি দেখানো হয়। তাদেরই একজন নিজেকে ক্ষমতাসীন দলের নেতা জুয়েল নাম পরিচয় দিয়ে তাদের কিছুই করতে পারবেনা বলে ভয় দেখায়।নিজেদের মধ্যে কথাবলার সময় একজন অন্যজনকে কাজল নামে ডাকছিল। এক পর্যায়ে ওই চার বাঙ্গালি যুবক তার প্রেমিকাকে কুপ্রস্তাব দেয়। এতে রাজি না হওয়ায় জোর করে দুই যুবক তার প্রেমিকাকে শিশু পার্কের জন্য নির্ধারিত জায়গাতে তুলে নিয়ে যায়। সঙ্গে সঙ্গে তাকেও অন্য দুই যুবক বেধে ফেলে। এরপর তার প্রেমিকার উপর পাশবিক নির্যাতন চালায় চার বাঙ্গালি যুবক।
ঘটনার ভিকটিমের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, সে সামনে এসএসসি পরীক্ষায় অংশ গ্রহন করবে। তার বাড়ি রুমা উপজেলার থানা পাড়া এলাকায়। তার বাবার নাম প্রু থোয়াইউ মারমা। শুক্রবার রাতের ঘটনায় ওই চার বাঙ্গালি যুবক তাকে তিনটি প্রস্তাব দেয়, প্রথমে তার বাড়ির বাবা-মাকে ডেকে নিয়ে আসার জন্য বলে, এরপর পুলিশের হাতে তুলে দেওয়া ভয় দেখায়, এরপর তারা তাকে কুপ্রস্তাব দেয়। তারপর মেরে ফেলার ভয় দেখিয়ে কুপ্রস্তাব দেয়। তাদের প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় ওই চার পাষন্ড তার উপর শারীরিক নির্যাতন চালায়। চিৎকার করলে মুখ ও গলা চেপে ধরে। এই ঘটনায় এখনো থানায় মামলা দায়ের করা হয়নি। তবে মামলা দেওয়ার প্রস্তুতি চলছে বলে জানিয়েছে ভিকটিমের মামাতো বোন থুইঞাইনু মারমা।
জেলা সদর হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার (আরএমও) প্রবীর কুমার জানান,শনিবার ভিকটিমকে ভর্তি করা হয়েছে। ভিকটিমের মুখ থেকে গণধর্ষণের লোমহর্ষক ঘটনা শুনেছি,ভিকটিমকে পরীক্ষা করা হয়েছে।

আরও পড়ুন
2 মন্তব্য
  1. Ovi Chowdhory বলেছেন

    কুত্তারর বাচ্চারা হচ্ছে নিকৃষ্ট জাত।

  2. Singmong U Marma বলেছেন

    সুওয়ার বাচ্চাদের বাড়িতে মা বুন নেই। তাদের কে ফাসি দেওয়া উচিত।

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।