ভিন্ন ভিন্ন কর্মসূচীর জালে বান্দরবান বিএনপির রাজনীতি

বান্দরবানে বিএনপির দুই গ্রুপের ভিন্ন ভিন্ন কর্মসূচী
একদিকে বান্দরবান জেলা বিএনপির কমিটি বাতিল ও কেন্দ্র কর্তৃক অনুমোদিত ৯৮৩ জন কাউন্সিললের মাধ্যমে বিএনপির কমিটি গঠনের দাবী, অন্যদিকে আগামী ১৯ মে শুক্রবার শহরের মেঘলাস্থ নাইট হ্যাভেন হোটেলে বিএনপির কর্মী সমাবেশ আর সমাবেশে কেন্দ্রীয় কমিটির ভাইস চেয়ারম্যান শামসুজ্জামান দুদু’র আগমনকে কেন্দ্র করে সংবাদ সন্মেলনের মধ্যে দিয়ে জেলার বিএনপির চিরচেনা রাজনীতি কোন্দলের বিষয়টি ফের প্রকাশ পেয়েছে। আজ দুটি কর্মসূচীকে ঘিরে বান্দরবানে চাপা উত্তেজনা বিরাজ করলে জেলা বিএনপির কার্যালয়ে ও মানববন্ধন স্থলে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়।
বুধবার সকালে বান্দরবান প্রেসক্লাবের সামনে বিএনপির তৃণমুল এর ত্যাগী নেতাকর্মীবৃন্ধ বিভিন্ন ব্যানার হাতে নিয়ে ও কালো পতাকা প্রদর্শন করে মানববন্ধনে অংশ নেয় দলটির প্রায় দুইশতাধিক নেতাকর্মী। ঘন্টাব্যাপী এই মানববন্ধনে বক্তারা অভিযোগ করে বলেন, জাতীয়তাবাদী দল বিএনপির বান্দরবান জেলা কমিটি অবৈধ, আমরা এই কমিটি মানি না।
বক্তারা এসময় অবিলম্বে কেন্দ্র কর্তৃক অনুমোদিত ৯৮৩ জন কাউন্সিললের মাধ্যমে বান্দরবান জেলা বিএনপির কমিটি গঠনের দাবী জানান এবং বিএনপির চট্রগ্রাম বিভাগীয় সাংগঠনিক সম্পাদক মাহাবুবুর রহমান শামীমকে বান্দরবানের সকল দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি দেওয়ার দাবি জানান। এসময় বক্তব্য রাখেন, জেলা বিএনপির সাবেক যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক মজিবুর রশিদ, ছাত্রদল নেতা জাহাঙ্গীর আলম, জেলা ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক দৌলতুল কবির, পৌর বিএনপির সভাপতি নেতা নাসির উদ্দিনসহ অনেকে।
এদিকে আগামী ১৯ মে বান্দরবানে বিএনপির কর্মী সমাবেশ উপলক্ষে জাতীয়তাবাদী দল বিএনপির বান্দরবান জেলা কমিটি সকালে এক সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করে। এসময় সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয় আগামী ১৯ মে বিএনপির কর্মী সমাবেশ অনুষ্টিত হবে এবং এর জন্য ব্যাপক প্রস্তুতি গ্রহণ করা হচ্ছে।
সংবাদ সম্মেলনে বক্তারা জানান, বিএনপির বান্দরবান জেলা কমিটি বাতিল করার জন্য বিভিন্ন দুষ্টচক্র বিভিন্নভাবে অপ্রচেষ্টা চালাচ্ছে এবং দলের বিরুদ্ধে বিভিন্ন সময় মানববন্ধনসহ বিভিন্ন কর্মকান্ড করে দলকে ক্ষতিগ্রস্থ করছে। সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত থেকে এসময় বক্তব্য রাখেন বান্দরবান জেলা বিএনপির সভাপতি মা ম্যা চিং, বিএনপির সিনিয়র সহ সভাপতি অধ্যাপক ওসমান গণি, সহ সভাপতি আব্দুল মাবুদ,সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ জাবেদ রেজা,জেলা যুব দলের আহব্বায়ক আবু বকর,যুগ্ন আহব্বায়ক শিমুল দাশ, শ্রমিক দলের সাধারণ সম্পাদক কামাল উদ্দিনসহ দলীয় নেতাকর্মীরা।
এই সময় জেলা বিএনপির সভাপতি মা ম্যা চিং বলেন, জেলা বিএনপির কর্মী সমাবেশে বিশেষ অতিথি হিসাবে যোগ দিতে সাচিং প্রু জেরীসহ সবাইকে আমন্ত্রন পত্র পাঠানো হয়েছে।

আরও পড়ুন
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।