রোয়াংছড়িতে মেয়েকে ধর্ষণের অভিযোগে পিতা আটক

বান্দরবানের রোয়াংছড়িতে সৎ মেয়েকে ধর্ষণে অভিযোগে আপুইমং মারমা (৬৫) নামের এক বৃদ্ধকে আটক করেছে পুলিশ।

আজ বুধবার (৭জুলাই) বিকালের দিকে অভিযুক্ত ব‍্যক্তিকে অভিযান চালিয়ে ওয়াগয় পাড়া এলাকার থেকে আটক করেন এবং ভিকটিম সহ নবজাতক সন্তানকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসা হয়।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, ভিকটিম যখন ৩ বছর বয়সের শিশু তখন ভিকটিমের মাকে ওই সৎ পিতা আপুইমং মারমা বিয়ে করেন। ওই মায়ের বিয়ে হওয়ার পর থেকে সৎ বাবার সাথে খামার বাড়িতে বসবাস করে আসছিলেন। দিন দিন ভিকটিম বড় হলে ধর্ষক বৃদ্ধ লোকটি পরিকল্পিত ভাবে দ্বিতীয় সংসারের থাকার দুই ভাইকে গত অক্টোবর মাসের শেষে দিকে ঘর থেকে তাড়িয়ে দেন এবং ভিকটিমের মাকেও চিকিৎসার করার নামে বাড়ি ছাড়া করেন। ওই সময় ফাঁকা ঘরে কেউ না থাকার অবস্থায় (১৫) বছর বয়সের কিশোরীকে ধর্ষণ করে। গত ২রা জুলাই শুক্রবার ভিকটিম কিশোরী এক মেয়ে সন্তান প্রসব করেন। এতে গ্রামবাসীদের মধ্যে জানাজানি হলে ভিকটিমের কাছে জানতে চাইলে সৎ বাবা কর্তৃক ধর্ষিত হয়ে ঘটনা ঘটেছে বলে স্বীকার করেন।

রোয়াংছড়ি থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো: তৌহিদ কবির বলেন, ধর্ষণের অভিযোগে এক বৃদ্ধকে আটক করা হয়েছে। নবজাতক সন্তান সহ মাকে থানায় নিয়ে আসা হয়েছে। তবে বৃদ্ধলোকটি অসুস্থবোধ করায় পুলিশের প্রহরায় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাখা হয়েছে। রাত পোহালে কোর্টে পাঠানো হবে।

আরও পড়ুন
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।