লামায় তামাকের বিকল্প ভুট্টা প্রদর্শনীর মাঠ দিবস

বান্দরবানের লামা উপজেলায় রবি ২০১৬-১৭ মৌসুমে রাজস্ব খাতের অর্থায়নে মাটি, পরিবেশ ও মানুষের জন্য ক্ষতিকর তামাকের বিকল্প হিসেবে বাস্তবায়িত ভুট্টা প্রদর্শনীর মাঠ দিবস অনুষ্ঠিত হয়েছে। বৃহস্পতিবার দুপুরে পৌরসভা এলাকার মধুুঝিরি গ্রামের কৃষক মো. আশ্রাফের ভুট্টা প্রদর্শনী ক্ষেতে এ মাঠ দিবসের আয়োজন করে উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর। এ উপলক্ষে বান্দরবান কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক মো. আলতাফ হোসেনের সভাপতিত্বে আয়োজিত এক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন, বান্দরবান জেলা কৃষি কনভেনিং কমিটির আহবায়ক ও জেলা পরিষদ সদস্য ক্য সা প্রæ। এতে জেলা পরিষদ সদস্য মোস্তফা জামাল ও ফাতেমা পারুল, উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মো. নুরে আলম, আলীকদম উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মোহাম্মদ মামুন, সহকারী কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা স্বপন দাশ বিশেষ অতিথি ছিলেন। সভায় ভুট্টা চাষের ওপর মতামত প্রকাশ করে বক্তব্য রাখেন, প্রদর্শনীপ্রাপ্ত কৃষক মো. আশ্রাফ ও উপ-সহকারি কৃষি কর্মকর্তা সুকুমার দেওয়ানজি। সভায় বক্তারা বলেন, ভুট্টা মানুষ ও গবাদি পশুর উৎকৃষ্ট খাদ্য। এছাড়া এটির মাজা সবজি হিসেবে রান্না করে খাওয়া যায়। একটি ভুট্টার মধ্যে শর্করা, প্রোটিন ও প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন রয়েছে। তারা আরও বলেন, তামাকে চাষের তুলনায় ভুট্টা চাষে খরচ ও পরিমশ্রম অনেক কম। আর লাভও বেশি। অপরদিকে, তামাক চাষের ফলে জমি উর্বরতা হারানোর পাশাপাশি তামাক চাষী নিজের, পরিবারের অন্য সদস্যদের ও পরিবেশের অপূরণীয় ক্ষতি সাধন করে থাকে। তাই সবাইকে নিজের, পরিবেশের ও দেশের কথা চিন্তা করে তামাক চাষ পরিহার করে বিকল্প ভুট্টা ও আখ চাষে এগিয়ে আসতে হবে। আর এ চাষে কৃষি সার্বিক সহযোগিতা করবে বলে জানান বক্তারা। লামা উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মো. নুরে আলম বলেন, ক্ষতিকারক তামাক চাষের আগ্রাসন দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে। তাই তামাক চাষ থেকে ফেরাতে বিকল্প হিসেবে ১২০ জন কৃষককে প্রদর্শনীর মাধ্যমে ভুট্টার চাষ দেয়া হয়েছে। আবার উৎপাদিত ভুট্টা বাজারজাত করণের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের আশ্বাস দেন তিনি।

আরও পড়ুন
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।