লামায় ৪ ট্রাক পাথর আটক : ১২ জনের বিরুদ্ধে মামলা

লামায় ৪ ট্রাক পাথর আট
বান্দরবানের লামায় অবৈধভাবে পাচারের সময় পাথর ভর্তি চারটি ট্রাকসহ দুইজনকে আটক করেছে বান্দরবান ডিবি পুলিশ। বৃহস্পতিবার ভোরে লামা-চকরিয়া সড়কের কবিরার দোকান নামকস্থান থেকে এসব আটক করা হয়। আটকরা হলো- মো. ইউনুছ ও মো. আব্দুল জলিল। এ ঘটনায় আটক দুইজনকেসহ পাচারের সঙ্গে জড়িত মোট ১২জনকে আসামী করে মামলা করা হয়েছে।
এজাহার সূত্রে জানা যায়, লামা উপজেলার বিভিন্ন ঝিরি, ছড়া ও পাহাড় থেকে অবৈধ পাথর উত্তোলন ও পাচার হচ্ছে, এমন সংবাদের ভিত্তিতে বুধবার দিবাগত রাত ৩টার দিকে ডিবি পুলিশ কবিরার দোকান এলাকায় অভিযান চালায়। এ সময় আব্দুল জলিল ও মো. ইউনুছকেসহ পাথর ভর্তি চারটি ট্রাক আটক করেন। আটককৃত পাথরের আনুমানিক পরিমাণ ৮শত ঘনফুট এবং মূল্য ৪০ হাজার টাকা হবে বলে প্রাথমিক ভাবে ধারনা করা হয়েছে।
পরে ডিবি পুলিশের উপ-পরিদর্শক মো. রাফিকুল ইসলাম জামান বাদী হয়ে ১৯৯২ সালের খনিজ সম্পদ নিয়ন্ত্রণ ও উন্নয়ন আইন এর ৫ ধারায় ১২জনকে আসামী লামা থানায় মামলা করেন (মামলা নং ০৮, তারিখঃ ২৩ মার্চ ২০১৭ইং)। মামলার আসামীরা হলো- মো- ইউনুছ, মো. আব্দুল জলিল, মহিউদ্দিন মহিম, নাছির, মনু মেম্বার, ফরিদ কোম্পানী, বাবুল কোম্পানী, মোক্তারণ ত্রিপুরা, আপ্রæসিং, এনামুল হক, জামাল ফকির ও দলিলুর রহমান। জব্দকৃত ট্রাক গুলো যথাক্রমে চট্টমেট্রো-ট ১১-৬৪১৬, লট নং- ১০৯, লট নং- ১৭৬ ও লট নং- ১২৮।
অভিযানের নেতৃত্ব প্রদানকারী ডিবি পুলিশের এসআই মোতাল্লিব জানায়, ১০টি ট্রাক এক যোগে পাথর পাচার করছিল, আমরা সামনে থেকে সিগন্যাল দিলে পিছন থেকে ৬টি পাথর ভর্তি ট্রাক পালিয়ে যায়।
ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে লামা থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. আনোয়ার হোসেন বলেন, অন্য আসামীদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

আরও পড়ুন
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।