সন্ত্রাসীদের চাঁদা দিতে গিয়েছিলেন তারা : খাগড়াছড়িতে ৩৭ লাখ টাকাসহ আটক হলেন পাঁচ ঠিকাদার

খাগড়াছড়িতে চাঁদা দিতে গিয়ে টাকাসহ আটক ঠিকাদাররা
খাগড়াছড়ির থেকে ৩৭ লাখ টাকাসহ জাকির এন্টারপ্রাইজ নামে এক ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানের পাঁচ সহযোগী ঠিকাদারকে আটক করেছে পুলিশ। আটকরা হলেন জসিম উদ্দিন, আলমঙ্গীর হোসেন, মো. শফিক, মাইনউদ্দিন ও আল আমিন।
জেলার মহালছড়ি উপজেলার বিজিতলা এলাকা থেকে সোমবার রাত ১১ টার দিকে তাদের আটক করা হয়। ইউনাইডেট পিপলস ডেমোক্রেটিক ফ্রন্টকে (ইউপিডিএফ) চাঁদা দিতে যাওয়ার পথে তাদের আটক করা হয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।
নাম প্রকাশ না শর্তে এক সহযোগী ঠিকাদার জানান, সড়ক ও জনপদ বিভাগের অধীনে ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান ‘জাকির এন্টারপ্রাইজ’ খাগড়াছড়ি জেলায় ৩২টি পাকা ব্রিজের কাজ করছে। দীর্ঘদিন ধরে জাকির এন্টারপ্রাজের মালিক জাকির হোসেনের কাছ থেকে পাহাড়ের আঞ্চলিক সংগঠনগুলো এক কোটি চল্লিশ লাখ টাকা চাঁদা দাবি করে আসছিল। এরই মধ্যে সংগঠনগুলোকে কিছু টাকা পরিশোধ করেছেন জাকির। এরপরও প্রসিত বিকাশ খীসা’র নেতৃত্বাধীন ইউপিডিএফ চাঁদার জন্য হুমকি অব্যাহত রাখে। সেই কারণে তার ৫ সহযোগী ঠিকাদারকে দিয়ে ৩৭ লাখ টাকা পাঠান জাকির। কিন্তু গোপন সংবাদ পেয়ে পুলিশ তাদের আটক করে।
জাকির হোসেন চাঁদার দেয়ার বিষয়টি প্রথমে স্বীকার না করলে ও সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে বলেন, ইউপিডিএফসহ পাহাড়ি আঞ্চলিক সংগঠনগুলো অনেকদিন ধরে চাঁদা দাবি করে কাজ বন্ধসহ নানা ধরণের হুমকি দিয়ে আসছিল। কিন্তু কোন টাকা দেয়নি আমি। এই টাকাগুলো ব্রিজের কাজের শ্রমিকদের জন্য নিয়ে যাচ্ছিল তারা।
সদর থানার ওসি শাহাদাৎ হোসেন টিটু বলেন, চাঁদাবাজির অভিযোগে প্রসীত বিকাশ খীসাকে প্রধান আসামি করে মামলা হয়েছে। আটককৃতদের বিরুদ্ধে বিশেষ ক্ষমতা আইনে মামলা করে আজ মঙ্গলবার আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

আরও পড়ুন
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।