সম্প্রীতির ইউনিয়ন গড়তে নৌকা প্রতীক চান মালিরাং ত্রিপুরা

থানচি রেমাক্রী ইউপি নির্বাচন

অসম্প্রদায়িক চেতনা, পর্যটন শিল্পের বিকাশ, সামাজিক, সাংস্কৃতিক চর্চা, গ্রামীণ অবকাঠামো উন্নয়ন, সন্ত্রাসমুক্ত, শিক্ষা ও সম্প্রীতি ইউনিয়ন পরিষদ গড়তে প্রত্যাশী। আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে বান্দরবানে থানচি উপজেলা ১নং রেমাক্রী ইউনিয়নের ক্ষমতাসীন দলের প্রবীন নেতা আওয়ামী লীগের মনোনয়ন এবং নৌকা প্রতীক চান মালিরাং ত্রিপুরা এ সাবেক চেয়ারম্যান।

রবিবার সকালে তিনি বলেন, আমি ছাত্র জীবন থেকে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু আদর্শের সৈনিক। জীবনের শুরু থেকেই বিভিন্ন সামাজিক সাংস্কৃতিক সংগঠন প্রতিষ্ঠার মাধ্যমে এলাকার বেকার যুবকদের আত্নকর্মসংস্থান সৃষ্টির লক্ষ্যে কাজ করে যাচ্ছি।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এবং পার্বত্য মন্ত্রী বীর বাহাদুর (উশৈসিং) এর স্বপ্ন পূরনে লক্ষ্যে গ্রামের বৈষম্য দূর করে কৃষি বিপ্লবের বিকাশ, কুটিরশিল্প, শিক্ষা,যোগাযোগ ব্যবস্থা,খেলাধুলা, জন্য অবকাঠামো,গড়ে তোলার সহ জনস্বাস্থ্যের উন্নয়নের মাধ্যমে পাহাড়ে, গ্রামাঞ্চলে আমুল পরিবর্তন রেমাক্রী ইউনিয়নের বসবাসরত মারমা, ম্রো, ত্রিপুরা, খুমী ও বম ইত্যাদি সম্প্রদায়ের সেতুবন্ধন ও সম্প্রীতি ইউনিয়ন গড়ার কাজ করছি ।

তাছাড়া আমি প্রতিটি জাতীয় সংসদ নির্বাচনে পার্বত্য বাসীদের অহংকার বীর বাহাদুর এমপি পক্ষে কাজ করে সব নির্বাচনে বিপুল ভোটে ব্যবধানে বিজয়ী হতে পেরেছি। সে কারনে রেমাক্রী ইউনিয়নের সকল শ্রেনির পেশা মানুষের সংগে আমার সু-সম্পর্ক রয়েছে।

মালিরাং ত্রিপুরা ২০০৪ সালে ঔ ইউনিয়নের ৪নং ওয়ার্ডে ম্বোর নির্বাচিত হন এর পরে ২০১১ সালে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন। এই সুবাদে তিনি ১৯৯৭ সালে শান্তির চুক্তি সম্পাদনের পর আওয়ামী লীগের পতাকা তলে যোগ দেন । ২০১০ সালে উপজেলা স্বেচ্ছা সেবক লীগের সভাপতি,২০১১ সাল হতে ২০১৮ সাল পরযন্ত উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতির দায়িত্ব ছিলেন, তার সাথে ২০১৭ সালে থানচি সদর ইউনিয়নের আওয়ামী লীগের সভাপতি দায়িত্ব গ্রহন করে দলের জন্য প্রচুর সময় ব্যয় করেছিলেন ।

তিনি আরো বলেন, আমি আশাবাদী দল আমাকে নৌকা প্রতীক মনোনয়ন দেবে। মনোনয়ন পেলে নৌকা প্রতীকে বিজয়ী হয়ে জননেত্রী শেখ হাসিনা স্বপ্ন বাস্তবায়নের গ্রামের বৈষম্য দূর করে কৃষি বিপ্লবের বিকাশ, কুটির শিল্প, শিক্ষা, যোগাযোগ ব্যবস্থা, খেলাধুলা, জন্য অবকাঠামো,গড়ে তোলারসহ জনস্বাস্থ্যের উন্নয়নে মাধ্যমে পাহাড়ে গ্রামাঞ্চলে আমুল পরিবর্তন করে একটি সম্প্রীতির আধুনিক রেমাক্রী ইউনিয়ন গড়ব।

আরও পড়ুন
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।