কাপ্তাইয়ের সাতটি পূজা মন্ডপে শারদীয় উৎসবের আমেজ

রাঙামাটির কাপ্তাইয়ের পূজা মন্ডপে শারদীয় উৎসবের আমেজ। ছবি- ঝুলন দত্ত
রাঙামাটির কাপ্তাইয়ের পূজা মন্ডপে শারদীয় উৎসবের আমেজ। ছবি- ঝুলন দত্ত
“মাগো চিন্ময়ী রুপ ধরে আয়, মৃন্ময়ী রুপে পুজি’সেই দুর্গে, দুর্গতি কাটিল না আর”। মৃন্ময়ী মাকে চিন্ময়ী রুপে পাবার আখাঙ্কায় এবার রাঙামাটির কাপ্তাইয়ের সনাতনী পল্লীতে শারদীয় দুর্গা উৎসবের আমেজ শুরু হয়েছে। পূজা মন্ডপ গুলিতে প্রতিমা তৈরির কাজ শেষ। এখন শুধু শেষ মুহূর্তের প্রস্তুতি। জমে উঠেছে পূজার বাজার।
শুক্রবার দেবী দুর্গার বোধনের মাধ্যমে শুরু হবে পূজার আনুষ্ঠানিকতা। কাপ্তাই উপজেলা পূজা উদযাপন কমিটির সভাপতি দীপক কান্তি ভট্টাচার্য্য এবং সাধারণ সম্পাদক সাগর চক্রবর্তী জানান, এবার সাতটি পূজা মন্ডপে শারদীয় দু্র্গাপূজা অনুষ্টিত হবে।পূজামন্ডপ গুলি হলো – রাইখালী ত্রিপুরা সুন্দরী কালীবাড়ী,চন্দ্রঘোনা মিশন এলাকা আদি নারায়ণ বৈদান্তিক বিদ্যালয় ও সিদ্বেশ্বরী কালী মন্দির, কে পি এম হরি মন্দির,শিলছড়ি দুর্গামন্দির,কাপ্তাই লক গেইট জয়কালী মন্দির এবং কাপ্তাই ব্রিকফিল্ড দুর্গামন্দির।
কাপ্তাই উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা তারিকুল আলম জানান, প্রতিটি মন্ডপে নিচ্ছিদ্র নিরাপত্তা ব্যবস্হা গ্রহণ করা হবে, পুলিশের পাশাপাশি আনসার,বিজিবি এবং র‌্যাব সার্বক্ষণিক পুজা মন্ডপে নজরদারী রাখবেন।
পূজা উদযাপন কমিটির সাংস্কৃতিক সম্পাদক সাংবাদিক ঝুলন দত্ত জানান, প্রতি বছরের ন্যায় এ বছরও বিজয়া দশমীর দিন ঐতিহ্যবাহী কর্ণফুলী নদীতে নৌ র‌্যালির মাধ্যমে প্রতিমা বিসর্জন দেওয়া হবে।পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী বীর বাহাদুর এম পি বিসর্জন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্হিত থাকবেন।বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত থাকবেন সাবেক প্রতিমন্ত্রী দীপংকর তালুকদার,রাঙ্গামাটির জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বৃষকেতু চাকমা সহ জনপ্রতিনিধিরা। এছাড়া পদস্হ সরকারি কর্মকর্তারা বিসর্জন অনুষ্ঠানে উপস্হিত থাকবেন। এই উপলক্ষে কর্ণফুলী নদীতে ভাসমান মঞ্চে বেতার এবং টিভি শিল্পীরা সংগীত পরিবেশন করবেন।

আরও পড়ুন

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।