কাপ্তাই ছাত্রলীগ নেতা এ আর লিমন এর মহানুভবতা

রাঙামাটি জেলার কাপ্তাই উপজেলার ১নং চন্দ্রঘোনা ইউপি আওতাধীন এলাকার বাসিন্দা মুক্তিযোদ্ধা আবিউর রহমান ও ফেরদৌস আরা বেগমের মেঝ সন্তান আলিব রেজা লিমন (এ আর লিমন)। পিতার আদর্শে অনুপ্রাণিত হয়ে আলিব রেজা লিমন প্রতিনিয়ত দেশ, সমাজ সর্বোপরি আত্মমানবতার সেবায় কাজ করে যাচ্ছে । যেমনটা করোনার প্রকোপে আয় রোজগার হারানো অসহায় হতদরিদ্র অনেক পরিবারের পাশে নিঃস্বার্থভাবে সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিয়ে নিরলস কাজ করে যাচ্ছে আলীব রেজা লিমন।

এ আর লিমন বঙ্গবন্ধুর আদর্শে উজ্জীবিত একজন সৈনিক হিসেবে কাপ্তাই উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব পালনের পাশপাশি অনেকগুলো সংগঠন কে নেতৃত্ব দিয়ে যাচ্ছে।

তিনি মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ ও বঙ্গবন্ধু স্মৃতি সংসদ রাঙ্গামটি জেলার সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করে আসছে। শুধু তাই নয় কাপ্তাইয়ে নানা দুর্যোগকালীন সময়ে তাঁর ভুমিকা ছিল অন্যতম। নিজের জীবন বাজি রেখে নদীতে ঝাঁপ দিয়ে অন্যের জীবন বাঁচিয়ে আগেই দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছিলেন তিনি। এছাড়া যে কোন মানুষের বিপদে আপদে সবসময় এগিয়ে আসেন সৎ সাহসী এই ছাত্রলীগ নেতা।

দেশের এই দুর্যোগকালীন সময়ে ও থেমে নেয় তাঁর মানবতার সেবার কর্মকান্ডগুলো। মহামারি করোনা ভাইরাসে যখন নিম্মশ্রেণীর অসহায় মানুষগুলো কর্মহীন হয়ে মানবেতর জীবন পার করছে। ঠিক সেই সময়ে অসহায় মানুষের দ্বারে দ্বারে গিয়ে পৌঁছে দিচ্ছে ত্রাণসামগ্রী।

এই বিষয়ে ছাত্রলীগ নেতা আলিব রেজা লিমন পাহাড়বার্তাকে জানান, আজ ৯ এপ্রিল আমার জন্মদিন। প্রতিবছর জন্মদিনের জমানো টাকা দিয়ে বন্ধুদের সাথে অনেক আনন্দ করি কিন্তু এইবার আমার জন্মদিনের জমানো টাকা গুলো ও মানবসেবায় বিতরণ করেছি।

এছাড়া তিনি আরো জানান, ব্যাক্তিগত সহায়তায় গত ৫ এপ্রিল থেকে প্রায় শতাধিক হতদরিদ্র পরিবারকে ত্রাণসামগ্রী পৌঁছে দিয়েছেন। এছাড়া যদি অসহায় কোন ব্যাক্তি ত্রাণসামগ্রী চাইতে না পারে ফোন করে তাঁকে জানালে তিনি বাসায় গিয়ে ত্রাণ পোঁছে দিবেন। করোনা প্রতিরোধে প্রায় ৫০০ মাস্ক ও ৩০০ গ্লাবস বিতরণসহ ও প্রতিনিয়ত জীবাননুনাশক ছিটানো কার্যক্রম করে যাচ্ছেন তিনি।

তিনি জানান, এখনই সময় এই দুর্দিনে আমাদের সকলের উচিৎ হতদরিদ্র খেটে খাওয়া মানুষগুলোর পাশে দাঁড়িয়ে সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দেওয়া।

আরও পড়ুন

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।