ডিসির চিঠি জালিয়াতি, নাইক্ষ্যংছড়িতে মাদরাসা অধ্যক্ষের বিরুদ্ধে মামলা

বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়িতে জেলা প্রশাসকের (ডিসি) স্বাক্ষর জাল করে মাদরাসার নির্বাহী কমিটিতে সদস্য করার অভিযোগ উঠেছে এক অধ্যক্ষের বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) বাদী হয়ে তার বিরুদ্ধে মামলা করেছেন।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, নাইক্ষ্যংছড়ি মদিনাতুল উলুম মডেল ইনস্টিটিউট আলিম মাদরাসার অধ্যক্ষ সৈয়দ হোছাইন গত বছরের (২০১৮) ১৩ নভেম্বর এক স্মারক মূলে মোহাম্মদ শফি উল্লাহ ও ছৈয়দ আলমকে নির্বাহী কমিটির সদস্য করে মাদরাসা বোর্ড থেকে অনুমোদন নেন।

রকৃতপক্ষে অনুমোদন নেয়া সেই চিঠিটি ডিসি ইস্যু করেননি। তার স্বাক্ষরিত উপজেলার আশারতলী এলাকার অন্য একটি মাদরাসার স্মারক নম্বর জালিয়াতি করে অধ্যক্ষ সৈয়দ হোছাইন নিজেই পছন্দের ব্যক্তির নাম বসিয়ে এ কাজ করেন।

এ বিষয়ে সরেজমিনে ও গোপন তদন্তে অভিযুক্তের বিরুদ্ধে জালিয়াতির প্রমাণ পাওয়া যায়। এরপর ডিসির তার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়ার নির্দেশ দেন। সে আদেশ মোতাবেক উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) সাদিয়া আফরিন কচি বাদী হয়ে মঙ্গলবার (২৪ ডিসেম্বর) রাতে সৈয়দ হোছাইনের বিরুদ্ধে মামলা করেন।

ইউএনও সাদিয়া আফরিন কচি বলেন, মদিনাতুল উলুম মাদরাসা অধ্যক্ষের বিরুদ্ধে দীর্ঘদিন ধরে একাধিক লিখিত অভিযোগ পাচ্ছিলাম। অনেক অভিযোগ প্রমাণ পাওয়া গেছে। এরমধ্যে চিঠি জালিয়াতির বিষয়টি প্রমাণিত হওয়ায় ডিসির নির্দেশে তার বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছে।

নাইক্ষ্যংছড়ি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আনোয়ার হোসেন বলেন, ডিসির চিঠি জালিয়াতির অভিযোগে ইউএনওর দায়েরকৃত মামলাটি গ্রহণ করা হয়েছে। বিষয়টি তদন্ত পূর্বক আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

আরও পড়ুন

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।