নাইক্ষ্যংছড়িতে এতো চোলাই মদ !

নাইক্ষ্যংছড়ির সোনাইছড়ি ইউনিয়নের লামার পাড়া এলাকা থেকে উদ্ধার করা চোলাই মদ
বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়িতে অভিযান চালিয়ে বিপুল পরিমান পাহাড়ী চোলাই মদ উদ্ধারসহ এক ব্যবসায়ীকে আটক করেছে কক্সবাজারের র‌্যাব- ৭। গত বুধবার দুপুর সাড়ে ৩টায় উপজেলার সোনাইছড়ি ইউনিয়নের লামার পাড়া এলাকা থেকে ২ লাখ ৫০ হাজার এক’শ লিটার চোলাই মদ উদ্ধারসহ ঘটনাস্থল থেকে মংহ্লা ফি মার্মার ছেলে মংওয়াং মার্মাকে (৪০) আটক করা হয়েছে।
স্থানীয় সূত্র জানায়, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সাদিয়া আফরিন কচি এবং কক্সবাজার র‌্যাব-৭ এর মেজর মেহেদী হাসানের নেতৃত্বে যৌথ একটি দল উপজেলার সোনাইছড়ির লামার পাড়া এলাকায় অভিযান চালায়। এসময় র‌্যাবের উপস্থিতি টের পেয়ে ঘরোয়া মদ ব্যবসায়ীরা পালিয়ে যায়। তবে এসময় প্রশাসনের জালে একজন উপজাতীয় ব্যবসায়ী প্রায় দুই লাখ ৫০ হাজার এক’শ লিটার চোলাই মদসহ আটকা পড়ে।
ওই উদ্ধারকৃত চোলাই মদের মধ্যে ঘটনাস্থলেই ২ লাখ ৫০ হাজার লিটার এলাকার লোকজনের উপস্থিতিতে ধ্বংস করে দেয় প্রশাসন। বাকী ১০০ লিটার মদসহ আটককৃত মংওয়াং মার্মার বিরুদ্ধে র‌্যাব বাদী হয়ে নাইক্ষ্যংছড়ি থানায় মামলা রুজু করেছেন।
উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সাদিয়া আফরিন কচি অভিযানের ঘটনাটি নিশ্চিত করে বলেন, নাইক্ষ্যংছড়ি প্রশাসন ও র‌্যাব-৭ এর যৌথ অভিযানে উপজেলার সোনাইছড়িতে অভিযান চালিয়ে পাহাড়ী চোলাই মদ উদ্ধার করে ঘটনাস্থলে উদ্ধাকৃত দুই লাখ ৫০ হাজার এক’শ লিটার মদের মধ্যে দুই লাখ পঞ্চাশ হাজার লিটার ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযান দেখিয়ে ঘটনাস্থলে ধ্বংস করে দেন। বাকী ১০০লিটার মদসহ আটককৃত ১জন মদ ব্যবসায়ীকে থানায় সোপর্দ করা হয়েছে।
নাইক্ষ্যংছড়ি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আনোয়ার হোসেন বলেন, আটককৃত চোলাই মদ ব্যবসায়ীর বিরুদ্ধে সংশ্লিষ্ট আইনে মামলা রুজু হয়েছে। তাকে আজ বৃহস্পতিবার বান্দরবান আদালতে প্রেরণ করা হয়।

আরও পড়ুন

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।