নাইক্ষ্যংছড়িতে ফের হাতির আক্রমণে বৃদ্ধা নিহত

বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার দোছড়ি ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ড লংখাই গ্রামে ছালেহা বেগম (৬২) নামের এক বিধবা বৃদ্ধা নারী বন্য হাতির আক্রমণে নিহত হয়েছে। নিহত ছালেহা বেগম ঐ গ্রামের মৃত স্বামী মোক্তার আহমদের স্ত্রী।

স্থানীয় ইউপি সদস্য রেহেনা আক্তার জানান, স্বামী পরিত্যক্ত বৃদ্ধা নারী ছালেহা বেগম স্বামীর মৃত্যুর পর মানুষে বসতবাড়িতে কাজ করে সংসার চালাতেন। কাজ শেষে একাই বসতবাড়িতে রাতযাপন করতেন। আজ রবিবার (২২ ডিসেম্বর) ভোর রাত ৪টার দিকে তার বসতবাড়িতে বন্য হাতির পাল হানা দিয়ে ঘরবাড়ি ভাংচুর ও ছালেহা বেগমকে আছাড় মেরে শরীরের বিভিন্ন অংশে ক্ষত বিক্ষত করে ফেলে। সকালে খামারে যাওয়ার পথে স্থানীয়রা দেখার পর তারা ইউপি সদস্য ও পুলিশকে খবর দেয়। খবর পেয়ে নাইক্ষ্যংছড়ি থানা পুলিশ ও পার্শ্ববর্তী ছাগলখাইয়া ক্যাম্পের সদস্যরা ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশ উদ্ধার করে।

দোছড়ি ইউপি চেয়ারম্যান হাবিবুল্লাহ জানান, দূর্গম পাহাড়ী এলাকা লংখাই গ্রামে ছালেহা বেগম নামের এক বৃদ্ধা বিধবা নারী হাতির আক্রমণে মৃত্যু হয় এবং হাতির পাল তার বসতবাড়িও ভাংচুর করে নষ্ট করে ফেলে।

নাইক্ষ্যংছড়ি থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ আনোয়ার হোসেন বলেন,নিহতের লাশ সুরতহাল শেষে পরিবারের আত্মীয় স্বজনের নিকট হস্তান্তর করা হয়েছে।

একই উপজেলার সদর ইউনিয়নে বন্য হাতির আক্রমণে একের পর এক মৃত্যুর ঘটনায়
স্থানীয়দের মধ্যে আতংক বিরাজ করছে। বন্য হাতির পাল প্রায় সময় লোকালয়ে
হানা দিয়ে বসতবাড়ি ভাংচুর করে ক্ষেতখামার নষ্ট করে যাচ্ছে।

প্রসঙ্গত, গত শুক্রবার ভোররাতে সদর ইউনিয়নের ৪নং ওয়ার্ডের কালুকাটা এলাকায় মনির আহম্মদ নামে এক বৃদ্ধ হাতির আক্রমনে নিহত হয়।

আরও পড়ুন

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।