পাহাড়ে শান্তি প্রতিষ্ঠায় সেনাবাহিনীর গুরুত্ব অপরিসীম

খাগড়াছড়ি রিজিয়ন কমান্ডার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর আলম (বিএসপি,এনডিসি, পিএসসি) বলেছেন, এদেশ কোন সন্ত্রাসী কিংবা চাঁদাবাজের নয়। এদেশ আমার আপনার সকলের৷ পার্বত্য চট্টগ্রামে শান্তি প্রতিষ্ঠায় সেনাবাহিনীর সদস্যরা নিজেদের জীবন উৎসর্গ করছে৷ তাছাড়া পাহাড়ের জনসাধারণের মাঝে সকল ধরনের সহযোগিতা অব্যাহত রেখেছে সেনাবাহিনী৷ শৃঙ্খলা উন্নয়ন ও নিরাপত্তা বজায় রাখার পাশাপাশি পাহাড়ে শান্তি প্রতিষ্ঠায় সেনাবাহিনীর গুরুত্ব অপরিসীম।

শনিবার (১২ ফেব্রুয়ারি) সকালে খাগড়াছড়ির দীঘিনালার বাবুছড়া ইউপির দুর্গম ধনুমনি কারবারী পাড়া এলাকায় ২০৩ পদাতিক ব্রিগেড ও দীঘিনালা জোনের যৌথ উদ্যোগে অসহায় ও হতদরিদ্র পরিবারের মাঝে শীতবস্ত্র,খাদ্য সামগ্রী ও বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন তিনি।

অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন দীঘিনালা জোন অধিনায়ক লেঃ কর্নেল চৌধুরী মোহাম্মদ ফাহিম আশরাফী (পিএসসি), বাবুছড়া ইউপি চেয়ারম্যান সন্তোষ কুমার চাকমা ও স্থানীয় জনপ্রতিনিধিগণ৷

বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর পক্ষ হতে এসব আর্থিক সহায়তা পেয়ে সন্তুষ্টি প্রকাশ করেন স্থানীয় সাধারণ খেটে-খাওয়া জনগণ।

জানা যায়, ধনুমনি কারবারী পাড়ার অধিকাংশ মানুষ গরীব ও অসহায়। দূর্গম এই জনপদের মানুষ দিনমজুরি ও কৃষি কাজের মাধ্যমে জীবিকা নির্বাহ করে থাকেন। উপজেলা সদর হতে দূরে ও দূর্গম এলাকা হওয়ায় সেখানে কখনো কোন শীত বস্ত্র পৌছায়নি। শীতের এই তীব্রতা প্রতিরোধ এর উত্তম ব্যাবস্থা না থাকায় শীতজনিত রোগ আশংকাজনক ভাবে বৃদ্ধি পাচ্ছে। এহেন পরিস্থিতি অনুধাবন করে দীঘিনালা জোন এই এলাকার জনসাধারণ এর পাশে এসে দাঁড়ায়।

আরও পড়ুন
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।