বান্দরবানের রুমায় জীপ গাড়ির ৩ ড্রাইভারকে অপহরণ !

বান্দরবানের পাশ্ববর্তী রাজস্থলী উপজেলায় এক সেনা সদস্যকে গুলি করে হত্যার রেশ কাটতে না কাটতেই জেলার রুমা উপজেলায় জীপ গাড়ির ৩ ড্রাইভারকে অপহরণ করছে শসস্ত্র সন্ত্রাসীরা। অপহৃতরা হলেন, নয়ন দাশ, মো: মিজান ও বাসু কর্মকার।

অপহৃত ড্রাইভার বাসু কর্মকারের ছোট ভাই বিনোদ কর্মকার বলেন, আজ দুপুরে সে (বাসু কর্মকার) ঘর থেকে ভাত খেয়ে বের হয়, এরপর বিকাল থেকে তার মোবাইল বন্ধ। তিনি আরো বলেন, পরে বিভিন্ন লোক থেকে খবর পেয়েছি তাদের অপহরণ করা হয়েছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে,সোমবার(১৯ আগস্ট) বিকালে রুমা উপজেলার মুননুয়াম পাড়া থেকে তিন ড্রাইভারকে অপহরণ করা হয়। উপজেলার মুননুয়াম পাড়া থেকে যাত্রী নামিয়ে দিয়ে রুমা সদরে ফেরার পথে শসস্ত্র সন্ত্রাসীরা তাদের অপহরণ করে নিয়ে যায়। এসময় তিনটি জীপ গাড়ি মিনঝিড়ি পাড়ায় রেখে তাদের পাহাড়ের দিকে নিয়ে যায়।

এই ব্যাপারে রুমা থানার ওসি মিজানুর রহমান বলেন, তিন ড্রাইভারের অপহরণের বিষয়টি শুনেছি, আমরা বিস্তারিত খবর নিয়ে পরে জানাবো।

স্থানীয়রা জানায়, জেলার কোন শসস্ত্র সন্ত্রাসী গ্রুপ এই ঘটনা ঘটিয়েছে তা জানা না গেলেও গত কয়েকদিন রুমা উপজেলার মুননুয়াম পাড়া, মিনঝিড়ি পাড়াসহ বিভিন্ন এলাকায় শসস্ত্র সন্ত্রাসীদের আনাগোনা বেড়েছে, তারাই এই অপহরণের ঘটনা ঘটাতে পারে। আর এ ঘটনার পর স্থানীয়দের মধ্যে আতংক বিরাজ করছে।

বান্দরবান জেলার পুলিশ সুপার জাকির হোসেন মজুমদার বলেন,আমরা ও আপনাদের মতো (সাংবাদিক) অপহরণের ঘটনা শুনেছি, তবে শুনার পর সেখানে পুলিশ ও সেনা সদস্যরা তল্লাশি চালাচ্ছে।

প্রসঙ্গত, গত রোববার সকাল ১০টার দিকে রাঙামাটি রিজিয়নের রাজস্থলী আর্মি ক্যাম্প থেকে ৪ কিলোমিটার দক্ষিণে বান্দরবানের পার্শ্ববর্তী রাজস্থলী উপজেলার পোয়াইতুমুখ নামক এলাকায় সন্ত্রাসীরা সেনাবাহিনীর একটি টহল দলের উপর অতর্কিতে গুলি করলে সৈনিক নাসিম গুলিবিদ্ধ হয়ে গুরুতর আহত হন। পরে হেলিকপ্টারযোগে চট্টগ্রাম সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে নেওয়া হলে সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সন্ধ্যায় তিনি মারা যান।

আরও পড়ুন

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।