বান্দরবানে কোয়ারেন্টাইনে আছে ১০০ জন

৪২ জনকে খাবার পৌছালো উপজেলা প্রশাসন

সারাদেশে করোনা ভাইরাসের আতঙ্কে জন জীবন বিপন্ন হয়ে পড়েছে। ঠিক তেমনি পর্যটন নগরী বান্দরবানেও পড়েছে এর প্রভাব। যদিওবা এখনো বান্দরবানে কোন করোনা ভাইরাসের রোগী পাওয়া যায়নি। কিন্তু করোনা ভাইরাস থেকে বান্দরবান জেলাকে মুক্ত ও নিরাপদ রাখতে ইতোমধ্যে দেশ বিদেশ থেকে আসা বিভিন্ন মানুষকে নিরাপত্তার জন্য প্রতিষ্ঠানিক ও হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে।

আজ শনিবার (২৮মার্চ) দুপুরে বান্দরবান সদর উপজেলার উজানীপাড়ায় কমিউনিটি ডেভালপমেন্ট কনর্সান (সিডিসি) এর অফিস প্রাঙ্গণে হোমে কোয়ারেন্টাইনে থাকা ৪২ জনের জন্য খাবার বিতরণ করেন বান্দরবান সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. হাবিবুল হাসান। এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন, সদর উপজেলা ভূমি কর্মকর্তা শাহীনুর আক্তার,সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কমকর্তা মো. শহীদুল ইসলাম চৌধুরীসহ হোমে কোয়ারেন্টাইনে থাকা শিক্ষার্থীদের অভিভাবকরা।

এসময় বান্দরবান সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. হাবিবুল হাসান বলেন, বান্দরবান সদর উপজেলার অসহায় জনসাধারনের মাঝে ১০ মেট্রিক টন চাল বিতরণ করা হবে। ইতোমধ্যে আমরা বিভিন্ন এলাকায় তালিকা করে চাল বিতরণ করেছি। এই ধারাবাহিকতায় আমরা আজ হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকা ৪২ জনের জন্য খাবার চাল, ডাল, তেলসহ শুকনা খাবার বিতরণ করেছি। যারা গতকাল দিনাজপুর থেকে বান্দরবানে এসেছে তাই তাদের হোমে কোয়ারেন্টাইনে রাখছি।

এসময় তিনি আরো বলেন, এখানে ৪২ জন শিক্ষার্থীর মধ্যে ২৯ জন রুমা উপজেলার, ১০ জন রোয়াংছড়ি উপজেলার,২ জন থানচি উপজেলার এবং ১ জন সদর উপজেলার। এসময় হোমে কোয়ারেন্টাইনে থাকা মানুষের জনপ্রতি ৫ কেজি চাল, আধা কেজি তেল, ডাল, শুকনা খাবার বিতরণ করা হয়।

প্রসঙ্গত,বান্দরবান স্বাস্থ্য বিভাগের তথ্যে মতে, আজ পর্যন্ত কোন করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত রোগী পাওয়া যায়নি। তবে কোয়ারেন্টাইনে আছে ১ শত ১০ জন, যার মধ্যে হোম কোয়ারেন্টাইনে ১শত জন প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইনে ১০ জন, ৩০ জন হোম ও প্রতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইন থেকে ছাড়পত্র প্রদান করা হয়েছে।

আরও পড়ুন

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।