বান্দরবানে নিখোঁজ পর্যটকের লাশ উদ্ধার

বান্দরবানের রোয়াংছড়ির উপজেলার তারাছার বাদুর ঝর্ণায় গোসল করতে নামা মোছাম্মৎ আদনিন নামে নিখোঁজ আরো একজন পর্যটকের লাশ উদ্ধার করেছে ডুবরি দল বলে জানিয়েছেন তারাছা পুলিশ ক্যাম্পের পুলিশ পরিদর্শক (আইসি) জাকির। আদনিনের বাড়ি নারায়ণগঞ্জ জেলার ফুতুল্লা এলাকায় এবং সে কলেজ শিক্ষার্থী। তার বাবার নাম জহিরুল ইসলাম বলে জানান পুলিশ।

শনিবার সকাল ৯টার দিকে তার লাশ উদ্ধার করা হয় ।

তিনি আরো জানান, রাতে প্রচন্ড ঠান্ডা থাকায় উদ্ধারকারী দল নিখোঁজ পর্যটক উদ্ধারে নামতে পারেনি । তবে সকালে উদ্ধার তৎপরতায় নামেন তারা । খোঁজাখুজির পরে বাদুর ছড়া ঝর্ণার পাশের সাঙ্গু নদীর একটি বাঁক থেকে আদনিনের লাশ উদ্ধার করে ডুবরি দল । এদিকে আহনাফ আকিব নামে আরো একজন নিখোঁজ পর্যটকের খোঁজ করছে ডুবরি দল ।

এদিকে গতকাল শুক্রবার দুপুরে মারিয়া ইসলাম (১৯) নামে এক পর্যটকের লাশ উদ্ধার করে পর্যটকেরা ।

শুক্রবার বিকেল চারটার দিকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন বান্দরবান ট্যুরিস্ট পুলিশ পরিদর্শক মো: আমিনুল হক।

তিনি আরো জানান, নিহত শিক্ষার্থী নারায়ণগঞ্জ হেরিটেজ বিদ্যালয়ের ষষ্ঠ শ্রেণীর শিক্ষার্থী । ঝর্ণার পানিতে ডুবে মারিয়ার মৃত্যু হয়।

এদিকে রোয়াংছড়ি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি তদন্ত) মির্জা জহির উদ্দিন ঘটনার বিষয়ে জানান, ১০ জনের মধ্যে একজন ঝর্ণার কূপের পানিতে গোসল করতে নামে। এ সময় পানিতে নামা শিক্ষার্থীটি আস্তে আস্তে তলিয়ে যাওয়ার বিষয়টি হঠাৎ তার তিন বন্ধু দেখে। তখন ওই তিনবন্ধু তলিয়ে যাওয়া শিক্ষার্থীকে উদ্ধার করে কূপের তীরে উঠিয়ে দিলেও ওই তিনবন্ধু পানির নিচে তলিয়ে যায়। পরে অন্য শিক্ষার্থীরা কূপে খোঁজাখুঁজি করে মারিয়া ইসলামের লাশ উদ্ধার করে বলে জানান তদন্ত কর্মকর্তা।

আরও পড়ুন
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।