বিশ্বকাপ ফুটবলকে ঘিরে বান্দরবানে যত উম্মাদনা

বান্দরবান শহরের দর্জিরা বিশ্বকাপ ফুটবল উপলক্ষ্যে বিভিন্ন দেশের পতাকা তৈরী করতে ব্যস্ত সময় পার করছে
ফুটবল বিশ্বকাপ যতই এগিয়ে আসছে বান্দরবানের বিভিন্ন ভবন, বাড়ির ছাদ কিংবা দোকানের সামনে দেখা যাচ্ছে নানান দেশের নানান রঙ এর পতাকা। সেখানে ব্রাজিল এবং আর্জেন্টিনার পতাকা বেশি নজরে এলেও অন্যান্য দেশের পতাকাও রয়েছে। অন্যান্য দলের প্রতি সমর্থন থাকলেও প্রতি বিশ্বকাপের সময় বাংলাদেশের সমর্থকরা মূলত দুইভাগে ভাগ হয়ে যায়। ফুটবল ভক্তরা প্রিয় দলের পতাকা ওড়াচ্ছেন যে যার মতো করে বড় বড় পতাকা। বড় দলগুলোর পতাকা বানাতে ব্যস্ত সময় পার করছে দর্জির দোকানগুলোতে। বিশ্বকাপকে ঘিরে ভিনদেশী পতাকা বিক্রি করে তাই একটু বেশি উপার্জনই করছেন ব্যাবসায়ীরা।
বান্দরবান বাজারের দর্জি মো:আক্তার কামাল জানান, প্রতিদিন আমি ২০ থেকে ৩০ টি পতাকা তৈরি করছি,ব্রিক্রি ও বেশ ভালো হচ্ছে।
বান্দরবান বাজারের আরেক দজি আবুল কাসেম দীর্ঘ ৫০ বছর যাবৎ যিনি দর্জি কাজ করে আসছেন তিনি জানালেন,এই সময়টা আমাদের জন্য খুবই মুল্যবান। একদিকে রোজার ঈদের সেলাইয়ের কাজ অন্যদিকে বিশ্বকাপ ফুটবলের পতাকা তৈরির কাজ। আমি প্রতিদিন পতাকা বানাচ্ছি আর বিক্রি করছি । ব্রাজিল এবং আর্জেন্টিনার পতাকা বেশি বিক্রি হচ্ছে।
তিনি আরো জানান, এই বিক্রি চলবে বিশ্বকাপের ফাইনাল খেলা পর্যন্ত। একটি একটি করে দল বিদায় নেবে আর সেই দেশের পতাকা বিক্রিও বন্ধ হয়ে যাবে। তবে এবার ক্রেতারা প্রতিটি বিদেশী পতাকা কেনার সাথে সাথে একটি করে দেশের পতাকাও কিনছেন এবং বিদেশী দলের পতাকার সাথে সাথে সেটিও ওড়াচ্ছে।
খেলার মাঠের উত্তাপের পাশাপাশি বিশ্বকাপ ফুটবল নিয়ে আলোচনা চলছে সর্বত্র। বিশ্বের দুই ফুটবল পরাশক্তি আর্জেন্টিনা এবং ব্রাজিলকে নিয়েই মাতামাতিটা যেন একটু বেশি। আছে জার্মানি ইংল্যান্ড দলের সমর্থকও। সমর্থন জানাতে প্রিয় দলের জার্সি কিনতে দোকানে ভিড় করছেন ভক্তরা। শুধু পতাকা তৈরিতে দর্জির দোকান নয়,বেচাকেনা বেড়েছে বান্দরবানে ক্রীড়া সামগ্রীর দোকানগুলোতে ।
ভিন্ন ভিন্ন দেশের সমর্থকদের কথা মাথায় রেখেই জার্সি ও গেঞ্জির সমাহার ক্রীড়া সামগ্রীর দোকানগুলোতে। বিক্রি হচ্ছে আর্জেন্টিনা, ব্রাজিল, পর্তুগাল, জার্মানী ও স্পেনের জার্সি ও প্যান্ট। বান্দরবান বাজারের বিভিন্ন ক্রীড়া সামগ্রীর দোকানে এখন দেখা যাচ্ছে ক্রেতাদের উপচে পড়া ভীড়।
বান্দরবান বাজারের পৌর শপিং কমপ্লেক্সের বাংলাদেশ স্পোর্টসের প্রোপাইটর রিপন দাশ জানান, এবারের বিশ্বকাপ ফুটবল নিয়ে আমাদের বেচাঁকেনা বেশ ভালো হচ্ছে। আমরা এখন ব্যস্ত সময় পার করছি। আমাদের এখন নিত্যনতুন কালেকশন রয়েছে। বেশিরভাগ দেশের পতাকা , জার্সি ও প্যান্ট আমরা ক্রেতাদের জন্য কালেকশনে রেখেছি ।
বান্দরবান বাজারের পৌর শপিং কমপ্লেক্সের সোহেল স্পোর্টসের প্রোপাইটর মো:শহীদুর রহমান সোহেল জানান, বিশ্বকাপ ফুটবল যতই এগিয়ে আসছে বান্দরবানের স্পোর্টসের দোকানে বিক্রি সে অনুযায়ী বাড়ছে। আমরা ক্রেতাদের চাহিদামত বিভিন্ন দেশের পতাকা বেশি বিক্রি করছি ।
সারা বিশ্বের মতো পার্বত্য জেলা বান্দরবানেও ফুটবল উৎসবের এ উম্মাদনা থাকবে পুরো মাস জুড়েই। ফুটবল উৎসবের শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত পার্বত্য জনপদের প্রতিটি আনাচে কানাচেই থাকবে এই আমেজ। তবে ফুটবল উৎসবে মেতে উঠতে ভক্তদের অপেক্ষা করতে হবে আরো কয়েকটি দিন।

আরও পড়ুন
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।