রাঙামাটিতে সকালে গোলাগুলি, বিকালে কোকো চাকমার লাশ উদ্ধার

রাঙামাটির বরকল উপজেলার সুবলং ইউনিয়নের কাচালং দোর এলাকার নারিকেল বাগানে জেএসএস (এমএন লারমার) ও জেএসএস (সন্তু) এর মূল দলের মধ্যে গোলাগুলির ঘটনায় নিখোঁজ কোকো চাকমার লাশ উদ্ধার করা হয়েছে।
পুলিশ সূত্রে জানা গেছে,রাঙামাটির বরকলের সুভলং এ আজ বৃহস্পতিবার সকালে দুই সশস্ত্র গ্রুপের মধ্যে গোলাগুলিতে জেএসএস এমএন লারমা গ্রুপের কর্মী কোকো চাকমা গুলি বিদ্ধ অবস্থায় নিখোঁজ হন। কাপ্তাই হ্রদ থেকে আজ বিকাল সাড়ে পাঁচটায় কোকোর লাশ উদ্ধার করা হয়।
বরকল এর শুভলং পুলিশ ফাড়ির ইনচার্জ এস আই আনোয়ার হোসেন বলেন, বৃহস্পতিবার সকালে রাঙামাটি থেকে একটি বালু বোঝায় ট্রলার বোট আরো একটি ইট বোঝায় ট্রলার বোট লংগদুর উদ্দেশ্য সুবলং বাজার ক্রস করে যাচ্ছিল। এ সময় চাঁদার জন্য সুবলং বাজারের মাজারের ঘাটে ভিড়ানোর জন্য চেষ্টা করে জেএসএস (এমএন লারমার) কর্মীরা। কিন্তু মাল বোঝায় ট্রলারের মালিকরা ঘাটে না ভিড়ে ট্রলার নিয়ে চলে যায়। এসময় জেএসএস (এমএন লারমা) তাদের হাতে থাকা ষ্পীড বোট নিয়ে ওই মাল বোঝায় দুটি ট্রলার বোট কে ধাওয়া করে। এক পর্যায়ে ওই দুটি ট্রলার বোটকে লক্ষ্য করে গুলি করে জেএসএস (এমএন লারমা) কর্মীরা। পরে আমবাগান নামক এলাকায় ওৎপেতে থাকা জেএসএস (সন্তু) দলের সাথে গুলি বিনিময় হয়। এতে জেএসএস (এমএন লারমার) ষ্পীড বোটের ড্রাইভার কোকো চাকমা (২৬) গুলিবিদ্ধ হয়ে পানিতে পড়ে যায়।
রাঙামাটির বরকলের শুভলং পুলিশ ফাঁড়ী ইনচার্জ এস আই আনোয়ার হোসেন বলেন, বিকালে কোকো চাকমার লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্ত্রের জন্য সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

আরও পড়ুন

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।