রেড জোন রাঙামাটিতে সতর্ক সচেতনতায় মাঠে ডিসি, এসপি

রাঙামাটি জেলাকে করোনা সংক্রমনের রেডজোন ঘোষনা করায় নড়েচড়ে বসেছে স্থানীয় প্রশাসন। সতর্কতার জের হিসেবে সংক্রমনরোধ ও সচেতনতার করণীয় ঠিক করতে আজ বৃহস্পতিবার জেলা প্রশাসন সম্মেলন কক্ষে জরুরী সভার আয়োজন করা হয়। এতে সভাপত্বি করেন জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ মিজানুর রহমান।

রাঙামাটিতে সংক্রমনের হার উদ্বেগজনক হারে বেড়ে যাওয়ায় সভায় বেশি কিছু গুরুত্বপুর্ণ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। সরকার ঘোষিত প্রজ্ঞাপন অনুসারে সবাইকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে হবে, মাস্ক পরিধান করতে হবে। রাত আটটার মধ্যে দোকানপাঠ বন্ধ রাখতে হবে। হোটেল রেস্তোরাগুলো স্বাস্থ্যবিধি মেনে পরিচালনা করতে হবে এবং অবশ্যই রাত দশটায় বন্ধ করতে হবে। হোটেল রেস্তোরাতে যারা অবস্থান নিবেন তাদের অবশ্যই টিকা কার্ড সঙ্গে রাখতে হবে। পর্যটনস্পটগুলোতে যাতে ভিড় লেগে না থাকে তার জন্য স্বেচ্ছাসেবক টিম কাজ করবে। যানবাহন অর্ধেক যাত্রী নিয়ে চলাচল করবে।

জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ মিজানুর রহমান বলেন, পুলিশ প্রশাসনের সহযোগিতায় জেলা প্রশাসনের নিয়োজিত মোবাইল টিম সার্বক্ষনিক মনিটরিং করবে। করোনার স্বাস্থ্যবিধির ব্যত্যয় ঘটলে জরিমানাসহ আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। তিনি করোনার সংক্রমনরোধে সকলের সহযোগিতা কামনা করেন।

জরুরী সভার পরপরই জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ মিজানুর রহমান ও পুলিশ সুপার মীর মোদদাছছেন হোসেনসহ প্রশাসনের অন্যান্য কর্মকর্তারা করোনা সংক্রমনরোধে সচেতনতা সৃষ্টি করতে শহরের বিভিন্ন জনবহুল স্থানে প্রচারণা চালান। এসময় সিভিল সার্জন ডাঃ বিপাশ খীসা, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক মোঃ মামুন, পৌর মেয়র আকবর হোসেন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার তাপস রঞ্জন ঘোষ উপস্থিত ছিলেন।

আরও পড়ুন
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।