আলীকদম হাসপাতালের বেদখল হওয়া জমি উদ্ধারে তদন্ত সম্পন্ন

আলীকদমে বেদখল হওয়া জমির স্থাপনাসহ একাংশ
বান্দরবানের আলীকদম উপজেলায় পুরনো হাসপাতালের জমি অবৈধ দখলের ঘটনায় আজ সোমবার তদন্ত সম্পন্ন হয়েছে। হাসপাতালের কর্মচারী ইয়াছিন শরীফ কর্তৃক অবৈধ দখল করার ঘটনায় সম্প্রতি অনলাইন নিউজ পোর্টাল পাহাড়বার্তায় সংবাদ প্রকাশিত হয়। এসব সংবাদের কাটিংসহ স্থানীয় তিনব্যক্তি সংশ্লিষ্ট দপ্তরে দখলদার কর্মচারী ইয়াছিন শরীফের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেন। গত ১২ জুলাই সিভিল সার্জন এ সংক্রান্ত তিন সদস্যের একটি কমিটি গঠন করেন। এ প্রেক্ষিতে সোমবার গঠিত কমিটি দখলীয় জায়গায় সরেজমিন তদন্ত শেষে অভিযোগকারীর কাছ থেকে লিখিত বক্তব্য গ্রহণ করেন।
তদন্ত কমিটির প্রধান ছিলেন, ডেপুটি সিভিল সার্জন ডা. তাহমিনা শবনম সোবহান। কমিটির অন্য দুই সদস্য হলেন বান্দরবান সিএস অফিসের মেডিকেল অফিসার ডা. মো: বেলায়েত হোসেন ও আলীকদম ইউএইচএন্ডএফপিও ডা. শহিদুর রহমান।
তদন্ত কমিটির প্রধান সাংবাদিকদের জানায়, দখলীয় জমি সরেজমিনে দেখা হয়েছে। অভিযুক্ত এবং অভিযোগকারীদের বক্তব্যও নেওয়া হয়েছে। আমাদের তদন্ত রিপোর্ট শীঘ্রই সিভিল সার্জন অফিসের মাধ্যমে বান্দরবান পার্বত্য জেলা পরিষদ চেয়ারম্যানের কাছে পাঠানো হবে। সেখান থেকে পরবর্তী করণীয় নির্ধারণ করা হবে।
এ বিষয়ে অভিযোগকারী উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি নাছির উদ্দিন চেয়রম্যান জানান, সরকারি সম্পদ উদ্ধারের জন্য পত্রিকায় রিপোর্ট হয়েছে এবং আমরা অভিযোগ দায়ের করে প্রশাসনকে সহযোগিতা করেছি। এখন গঠিত তদন্ত কমিটি নৈতিকমান বজায় রেখে ন্যায়ভিত্তিক তদন্ত রিপোর্ট দাখিল করলেই দখলদার ব্যক্তিকে উচ্ছেদ করা সময়ের ব্যাপারমাত্র।

আরও পড়ুন
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।