করোনা জয় করলেন পার্বত্য জেলার প্রথম রোগী

প্রতিদিন নতুন করে করোনা ভাইরাসে আক্রান্তের সংবাদ লেখাই যেন ছিল শুধু সংবাদকর্মীদের কাজ! তবে আজ সেই ধারা ভেঙেছে। তিন পার্বত্য জেলার মধ্যে বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার করোনা আক্রান্ত ৫৯ বছর বয়সী বৃদ্ধ আবু ছিদ্দিক চিকিৎসার ১০দিনের মাথায় করোনা জয় করে আইসোলেশন থেকে নিজ বাড়িতে ফিরেছে।

প্রথম করোনা সনাক্ত সেই বৃদ্ধ আবু ছিদ্দিকের চতুর্থ বারের রিপোর্টেও নেগেটিভ তা পাহাড় বার্তাকে নিশ্চিত করেছেন নাইক্ষ্যংছড়ি স্বাস্থ্য ও প: প: কর্মকর্তা ডা: আবু জাফর মো, ছলিম। তিনি প্রাথমিক ভাবে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরছিলো। ঘরে ফিরে আরও ৭ দিন হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকতে হবে বলে জানিয়েছিলো দায়িত্বরত চিকিৎসকেরা ।
গত ৩ মে রবিবার ন্যাশনাল গাইড লাইন অনুযায়ী চতুর্থ বারের মতো আবারও নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছিলো।

আজ ৪ মে সোমবার দুপুর ওই নমুনার রিপোর্টস নেগেটিভ আসাতে সে এখন পুরোপুরিভাবে সুস্থ বলা যেতে পারে এবং আগের মতো সমাজের সবার সাথে মেলামেশা করা আর কোন বাঁধা রইলো না।

স্বাস্থ্য বিভাগ সূত্রে জানা যায়, সুস্থ ব্যাক্তি নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার ঘুমধুম ইউনিয়নের তুমব্রু এলাকার ৫৯ বছর বয়সী আবু ছিদ্দীক পরপর তিন বার পরীক্ষায় এই রোগীর ফলাফল করোনা নেগেটিভ এসেছে। ন্যাশনাল গাইড লাইন অনুযায়ী এক সপ্তাহ হোম কোয়ারেন্টেইনে রেখে চতুর্থ বারের মতো ফের নমুনা নিয়ে ল্যাবে পাঠানো হলে সেই নমুনার রিপোর্ট নেগেটিভ আসায় তিনি এখন রোগ মুক্ত।

উল্লেখ্য, প্রথম করোনা সনাক্ত রোগী ছাড়া নাইক্ষ্যংছড়ি হাসপাতাল আইসোলেশন ইউনিটে একই পরিবারের ৪ জন করোনা সনাক্ত রোগী রয়েছে। তারা সবাই উপসর্গ ছাড়াই করোনা পজেটিভ সনাক্ত হয়েছিলো বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্য বিভাগ।

আরও পড়ুন

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।