করোনা যুদ্ধে কাপ্তাইয়ের ৫ ট্যাগ কর্মকর্তার নিরলস চেষ্টা

রাঙামাটি জেলার কাপ্তাই উপজেলার ৫টি ইউনিয়নে করোনা ভাইরাস সংক্রমনে কর্মহীন হয়ে পড়া হতদরিদ্রের ত্রাণ বিতরণ কার্যক্রম মনিটরিং, বাজার মনিটরিং, হোম কোয়ারেন্টাইন থাকা ব্যক্তিদের গতিবিধি তদারক এবং অন্যান্য জেলা হতে আগত ব্যক্তিদের বিষয়ে তথ্য সংগ্রহ করে উপজেলা প্রশাসন ও ইউপি চেয়্যারম্যানদের সাথে সহায়তা করা এবং সুষ্ঠু ভাবে প্রত্যেক হত দরিদ্রের নিকট ত্রাণ পৌঁছানোর লক্ষে উপজেলা ৫ জন ট্যাগ কর্মকর্তা নিষ্ঠার সাথে কাজ করে যাচ্ছেন।

কাপ্তাই উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আশ্রাফ আহমেদ রাসেল জানান, উপজেলার ৫টি ইউনিয়নে কর্মহীন হয়ে পড়া সকল পরিবারগুলো যেন ত্রাণ সহায়তার আওতায় আসে এবং ইউপি চেয়্যারম্যানদের সাথে সহায়তা করে ত্রাণ বিতরন কার্যক্রম মনিটরিং করাসহ বাজার মনিটরিং, হোমকোয়ারেন্টনে থাকা ব্যক্তিদের তদারক করার লক্ষ্যে উপজেলার ৫ জন কর্মকর্তাকে ট্যাগ কর্মকর্তাকে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে এবং তারা এই দায়িত্ব পালন করছেন যথাযথ ভাবে।

তিনি আরো বলেন, যার মধ্যে ১নং চন্দ্রঘোনা ইউনিয়নে কাপ্তাই উপজেলা সিনিয়র মৎস্য কর্মকর্তা সঞ্জয় দেবনাথ, ২ নং রাইখালী ইউনিয়নে উপজেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা তাহমিনা আরজু, ৩নং চিৎমরম ইউনিয়নে পরিসংখ্যান কর্মকর্তা মোঃ ফজলে রাব্বি মজুমদার, ৪নং কাপ্তাই ইউনিয়নে উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা নাজমুল হাসান এবং ৫নং ওয়াগ্গা ইউনিয়নে উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা মারফুদুল হক মারফুকে মনিটরিং এর দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে।

৩ নং চিৎমরম ইউনিয়নে দায়িত্ব প্রাপ্ত পরিসংখ্যান কর্মকর্তা ফজলে রাব্বি মজুমদার জানান, মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ উপহার গুলো জনগনের হাতে পৌঁছে দেওয়াসহ আমাদের নিকট অর্পিত দায়িত্ব পালনে আমরা প্রশাসন এবং জনপ্রতিনিধিদের সহায়তা করে আসছি।

আরও পড়ুন

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।