কাপ্তাইয়ে কর্ণফুলি নদীর ভাঙ্গনের কবলে বগারচর জামে মসজিদ ও কবরস্থান

রাঙামাটি জেলার কাপ্তাই উপজেলার ৩ নং চিৎমরম ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ডের বগারচর এলাকার একমাত্র জামে মসজিদটি কর্ণফুলি নদীর ভাঙ্গনের কবলে পড়েছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে,বগারচর এলাকায় কিছু সংখ্যক দরিদ্র মুসলিম সম্প্রদায়ের মানুষের বসবাস। উক্ত মসজিদে এলাকাবাসী নিয়মিত পঞ্জেগানা, শুক্রবারে জুমার নামায ও ঈদের নামায আদায় করেন।

বর্তমানে মসজিদ ও কবরস্থানটি কর্ণফুলি নদীর ভাঙ্গনের কবলে পড়েছে। মসজিদ ও কবরস্থানের সামনে দু’তিন হাত মাটি অবশিষ্ট আছে। মসজিদের সম্মুখে মাটি সরে গিয়ে বিশাল আকৃতির গর্ত হয়েছে এবং মসজিদের মাঝখানেও ফাটল দেখা দিয়েছে। আসন্ন যে কোন বর্ষায় উক্ত মসজিদ ও কবরস্থানটি নদীগর্ভে বিলীয় হয়ে যেতে পারে। মসজিদ ও কবরস্থানটি বিলীন হয়ে গেলে এলাকাবাসী নিদারুন দূর্ভোগে পড়বেন বলে তারা জানান।

মসজিদের ইমাম আব্দুল হাকিম জানান, এই এলাকার ধর্মপ্রাণ ইবাদতের সুবিধার্থে কর্ণফুলি পেপার মিলের সাবেক ফরেষ্ট ম্যানেজার মরহুম ইদ্রিস সাহেব ১৯৬৫ ইং সালে পঞ্জেগানা একটি মসজিদ প্রতিষ্ঠা করেন এবং পরবর্তীতে ১৯৮৫ ইং সালে মসজিদটি পাকা করে জুমা মসজিদের রূপান্তর করেন। পাশাপাশি এলাকার মুসলিম সম্প্রদায়ের জন্য একটি কবরস্থানও রয়েছে এবং এটিই এই এলাকার একমাত্র মসজিদ ও কবরস্থান।

কর্ণফুলি নদীর ভাঙনের কবল থেকে মসজিদ ও কবরস্থানটি রক্ষার্থে এলাকাবাসী সংশ্লিষ্ট সকলের সহযোগিতা কামনা করেন।

আরও পড়ুন

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।